কাভার্ড ভ্যানের চাপায় প্রাণ গেল আরেক মিমের

gazipur died
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: এবার গাজীপুরে খালি রাস্তায় বেপরোয়া কাভার্ড ভ্যানের চাপায় ফারহানা আক্তার মিম (১৯) নামের এক কলেজ ছাত্রীকে প্রাণ দিতে হলো।

শনিবার (৪ আগস্ট) দুপুরে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের বড়বাড়ী এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এরপর বিক্ষুব্ধ জনতা যানটিতে আগুন লাগিয়ে দেয়।

নিহত ফারহানা আক্তার মিম গাইবান্ধার সাদুল্লাহপুর থানার কদুরিয়া এলাকার মো. ফারুক হোসেনের মেয়ে। তিনি টঙ্গী সফিউদ্দিন সরকার একাডেমি অ্যান্ড কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী ছিলেন।

গাজীপুর ট্রাফিক বিভাগের জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) সালেহ উদ্দিন আহমেদ জানান, দুপুরের দিকে বড়বাড়ী এলাকায় রাস্তা পার হওয়ার সময় মিমকে ঢাকাগামী একটি কাভার্ড ভ্যান চাপা দেয়। এতে গুরুতর আহত হয় মিম।

তিনি জানান, প্রথমে মিমকে উদ্ধার করে স্থানীয় তায়রুন্নেছা মেমোরিয়াল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথেই মিম মারা যান।

এ ঘটনার জেরে স্থানীয়রা ভ্যানটিকে আটক করে অগ্নিসংযোগ করে। তারা ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। খবর পেয়ে জয়দেবপুর ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের সদস্যরা এসে আগুন নেভায়।

উল্লেখ্য, রবিবার (২৯ জুলাই) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কলেজ ছুটির পর ১৫-২০ জন শিক্ষার্থী এমইএস বাসস্ট্যান্ডে মিরপুর ফ্লাইওভারের মুখে দাঁড়িয়েছিল। এ সময় একটি বাস আরেকটি বাসকে আটকাতে গিয়ে দাঁড়িয়ে থাকা যাত্রীদের ওপর উঠে যায়।

এ সময় কেউ চাকার নিচে পিষ্ট হয় কেউ বা ধাক্কায় ছিটকে পড়ে যায়। ঘটনাস্থলেই মারা যায় শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী দিয়া আক্তার মিম ও আব্দুল করিম।

ad