কুষ্টিয়ায় বন্দুকযুদ্ধে শীর্ষ সন্ত্রাসী হামিদুল নিহত

Gun fight
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ায় র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে শীর্ষ সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী হামিদুল ইসলাম (৪৫) নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৫ মে) ভোর ৫টার দিকে শহরের গড়াই নদীর বাঁধ সংলগ্ন চর মিলপাড়ার বালুর মাঠে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত হামিদুল ‘হামিদুল বাহিনী’ নামে একটি সন্ত্রাসী বাহিনী পরিচালনা করতো। সে ওই বাহিনীর প্রধান ছিল। ২০০৭ সালে হামিদুল বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড তার ছোট ভাই রাশিদুল ইসলামও বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছিল। হামিদুল সদর উপজেলার ইটভাটা এলাকার মৃত রুস্তম আলীর ছেলে।

র‌্যাব-১২ কোম্পানী কমান্ডার এম মুহাইমিনুর রশিদ জানান, গড়াই নদীর পাড় সংলগ্ন বালুরমাঠে সন্ত্রাসীদের একটি দল অবস্থান করছে এমন গোপন সংবাদ পেয়ে র‌্যাবের একটি টহলদল ঘটনাস্থলে অভিযান চালায়। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। জবাবে র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালালে একজন গুলিবিদ্ধ হয়। তাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

র‌্যাব জানায়, হামিদুল ইসলাম পুলিশের তালিকাভূক্ত একজন শীর্ষ সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে হত্যাসহ বিভিন্ন অপরাধের একাধিক মামলা রয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ১টি দেশী পিস্তল, ১টি বিদেশী পিস্তুল, ৫ রাউন্ড গুলি ও ২টি ম্যাগজিন উদ্ধার করা হয়েছে।

ad