নির্বাচন ‘সুষ্ঠু’ দাবি খালেকের, ‘ভোট ডাকাতি’র অভিযোগ মঞ্জুর

Elections, Khalek, Manju,
ad

জাগরণ ডেস্ক: খুলনা সিটি করপোরেশন (কেসিসি) নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হয়েছে বলে দাবি করেছেন নবনির্বাচিত মেয়র ও আওয়ামী লীগ নেতা তালুকদার আব্দুল খালেক। তবে বিএনপির মেয়র প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জু অভিযোগ করেছেন, খুলনাবাসী ভোট ডাকাতির নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করেছে।

বুধবার (১৬ মে) দুপুর ১২টার দিকে খুলনা প্রেসক্লাবের মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে নবনির্বাচিত মেয়র ও আওয়ামী লীগ নেতা তালুকদার আব্দুল খালেক বলেন, কয়েকটি কেন্দ্রে সংগঠিত ঘটনাগুলো বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া আর কিছু না। বিএনপি এই নির্বাচনে জনমনে বিভ্রান্তি ছড়াতে তৎপর ছিল। কিন্তু জনগণ তাদের মতো করেই রায় দিয়েছেন।

তিনি বিএনপির মেয়র প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জুর প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করা দুরভিসন্ধি বাদ দিয়ে জনরায় মেনে নিন। আমি মঞ্জুসহ নগরীর সবার সহযোগিতা চাই। মঞ্জুর সুন্দর সহযোগিতা নগরীর উন্নয়নে সহায়ক হবে। আমি বারবার তার সহযোগিতা চাইবো।

এর আগে বেলা পৌনে ১১টার দিকে মহানগরী বিএনপির কার্যালয়ে কেসিসি নির্বাচনের ফল ঘোষণার পর আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া জানাতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলন করেন বিএনপির মেয়রপ্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জু।

তিনি বলেন, এই নির্বাচন কমিশন সুষ্ঠু নির্বাচনে সহায়ক না, যোগ্যও না। বিজিবি ও র‍্যাব ঘুমিয়ে ছিল। পুলিশ সক্রিয় থেকে ব্যালট বাক্স চুরিতে সহায়তা করেছে। সকাল থেকে রিটার্নিং অফিসার ফোন রিসিভ করেননি। গতকালের ভোট ডাকাতি প্রমাণ করেছে সেনাবাহিনী ছাড়া নির্বাচন সম্ভব নয়।

মঞ্জু বলেন, ১০৫টি কেন্দ্রে ব্যালট ছিনিয়ে ভোট দেয়া হয়েছে, ৪৫টি কেন্দ্রে ভোটারদের আটকে রাখা হয়েছে। ভোট ডাকাতির অন্যতম দৃষ্টান্ত এটি। ১০৫টি ভোট কেন্দ্রে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ তুলে পুনরায় নির্বাচনের দাবি জানাচ্ছি।

ad