ফতুল্লার আউটার স্টেডিয়ামে এখনও পানি

Fatullah outur stadium
ad

স্পোর্টস ডেস্ক: চারটি পাম্প দিয়ে পানি নিষ্কাশন করায় ফতুল্লার মূল মাঠে পানি না থাকলেও আউটার স্টেডিয়াম এখনও পানির নীচে। তাই আগামী ২২ আগস্ট বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে প্রস্তুতি ম্যাচটি না হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।

এদিকে, সফরকারী অস্ট্রেলিয়ার একটি নিরাপত্তা টিমের বুধবার (১৬ আগস্ট) এ মাঠ পরিদর্শন করার কথা থাকলেও তারা মাঠ পরিদর্শনে আগামীকাল ১৭ আগস্ট আসবেন বলে জানাগেছে।

বুধবার সকাল সাড়ে ১০টা। স্টেডিয়ামের প্রবেশমুখে তখন পানি নেই। তবে আকাশে জমে থাকা কালো মেঘ দেখে মনে হচ্ছে যে কোন সময়ে বৃষ্টি নামবে। বেশী বৃষ্টি হলে স্টেডিয়ামের প্রবেশমুখও পানিতে সয়লাব হয়ে যাবে। আর প্রধান ফটক থেকে মূল স্টেডিয়ামে যাওয়ার পথে লেগে থাকা কালো রঙের ময়লাগুলো দেখে বোঝা যাচ্ছে গতকালও এখানে পানি ছিল।

প্রধান ফটকের পাশেই একটি পাম্প পানি নিষ্কাশনের কাজে সচল রয়েছে। নিরাপত্তাকর্মী মোজাফ্ফর জানালেন, আগে পাঁচটি পাম্প দিয়ে পানি নিস্কাশন করা হলেও এই মুহূর্তে চারটি পাম্প সচল রয়েছে। মূল মাঠে পানি নেই তবে আউটার মাঠে সামান্য পানি রয়েছে। আজ আর বৃষ্টি না হলে বিকালের মধ্যেই পানি নিস্কাশন করা সম্ভব হবে।

স্টেডিয়ামের ভারপ্রাপ্ত ম্যানেজার বাবুল ভূইয়া জানান, বুধবার অস্ট্রেলিয়া দলের একটি নিরাপত্তা টিমের মাঠ পরিদর্শনের কথা থাকলেও পরে তারিখ পরিবর্তন হয়েছে। তারা বৃহস্পতিবার আসবেন। তার আগেই পানি নিস্কাশন করা সম্ভব হবে।

তবে মাঠ থেকে পানি নিস্কাশন করা সম্ভব হলেও মাঠে খেলা যাবে কিনা সে ব্যাপারে তিনি কিছুই জানাতে পারেননি।

সরেজমিনে মাঠে গিয়ে দেখা যায়, মূল মাঠের ৩০ গজ ছাড়া আর কোথাও ঘাস নেই। দীর্ঘদিন পানিতে ডুবে থাকার কারণে ঘাসগুলো মরে গেছে। সকালে এক পশলা বৃষ্টিতে মাঠে সৃষ্টি হয়েছে কাঁদা। এ মাঠ আর যাই হোক খেলার জন্য উপযোগি না।

উল্লেখ্য, ১৭ আগস্ট অস্ট্রেলিয়া দলের দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে ঢাকায় আসার কথা। ২৭ আগস্ট প্রথম টেস্টে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়া। সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট শুরু হবে ৪ সেপ্টেম্বর। এর মধ্যে বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়া টেস্ট সিরিজ খেলার আগে দু’দিনের একটি প্রস্তুতি ম্যাচের শিডিউল রয়েছে খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে। কিন্তু বর্তমান স্টেডিয়ামের এ পরিস্থিতিতে প্রস্তুতি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ। যদিও কর্তৃপক্ষ বলছে, মাঠের জলাবদ্ধতা দূরীকরণ ও বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া প্রস্তুতি ম্যাচের আগেই পানি মাঠ থেকে বের করে খেলার উপযোগী করার জন্য কাজ করা হচ্ছে।

তবে এ মাঠে খেলা না হলেও বিকল্প ভেবে রেখেছে বিসিবি। সে হিসেবে প্রথমেই নাম আসছে বিকেএসপি মাঠের। আরেক বিকল্প মোহাম্মদপুরের ইউল্যাব মাঠ। তবে বিকেএসপি মাঠে অস্টেলিয়া খেলতে আগ্রহী না হওয়ায় একটু দুশ্চিন্তায় পড়েছে বিসিবি। এখন কোন মাঠে খেলা হবে তা জানা যাবে আগামীকাল অস্ট্রেলিয়ার একটি নিরাপত্তা টিম ফতুল্লা স্টেডিয়াম পরিদর্শনের পর।

ad