রোহিঙ্গা বিতাড়নের বিচার চেয়ে আইসিসিতে আবেদন

Rohingya, deportation, trial, ICC, application,
ad

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সেনাবাহিনীর সহিংস অভিযানে লাখ লাখ রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশে বিতাড়িত করার ঘটনা হেগের আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের (আইসিসি) আওতায় আসবে কিনা সে বিষয়ে রুল জারির আবেদন করা হয়েছে।

সোমবার (৯ এপ্রিল) ঘটনাটিকে সম্ভাব্য মানবতাবিরোধী অপরাধ হিসেবে অভিহিত করে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের কৌঁসুলি ফাতোও বেনসুদা। বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক এ আদালতের সদস্য হলেও মিয়ানামার তা না থাকায় বিচারের এখতিয়ার জানার জন্য এ আবেদন করা হয়।

আবেদনে বলা হয়, কোনো দেশের বাসিন্দাদের জোর করে আন্তর্জাতিক সীমানার বাইরে ঠেলে দেয়া সবদিক থেকে মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধের মধ্যে পড়ে।

জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার একে জাতিগত নিধন অভিযানের উদাহরণ বলে বর্ণনা করেছেন। মিয়ানমার বিষয়ক জাতিসংঘের বিশেষ দূত একে গণহত্যার সব চিহ্ন রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন। তাদের এই দুটি বক্তব্যও আবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

ফাতোও বেনসুদা তার আবেদনে বলেন, ঘটনাটির তদন্ত করা ও প্রয়োজনে বিচার করা আদালতের এখতিয়ারভুক্ত কিনা সে বিষয়ে এটা সুনির্দিষ্ট প্রশ্ন, কোনও বিমূর্ত প্রশ্ন নয়।

জাতিসংঘ একে বর্ণনা করে আসছে ‘জাতিগত নির্মূল অভিযান’ হিসেবে। আন্তর্জাতিক আইনে দেশান্তরে বাধ্য করার বিষয়টি মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধের মধ্যে পড়ে।

বিষয়টি নিয়ে আদালত নির্দেশনা দিলে লাখ লাখ রোহিঙ্গার ওপর নির্যাতনের তদন্ত ও ‍বিচারের কাজ সহজ হবে। যদিও মিয়ানমার সহায়তা করবে বলে বাস্তবতার বিচারে মনে হচ্ছে না।

ad