সিটি নির্বাচনে বিনা পরোয়ানায় কাউকে গ্রেপ্তার নয়: ইসি

Without warranty, not arrest, EC,
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: নির্বাচন কমিশনার মো. রফিকুল ইসলাম বলেছেন, সিলেটসহ তিন সিটিতে নির্বাচনী প্রচারের সময় বিনা পরোয়ানায় কাউকে গ্রেপ্তার না করার নির্দেশনা দেয়া থাকবে। পুলিশ প্রশাসন অযথা কোনো হয়রানি করবে না। কোনো কর্মকর্তা অযথা হয়রানি করলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শনিবার (১৪ জুলাই) সিলেট নগরীর রিকাবিবাজারে মোহাম্মদ আলী জিমনেশিয়ামে ইলেকশন কমিশন আয়োজিত সিসিক নির্বাচনে মেয়র-কাউন্সিলরদের নিয়ে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, সিলেটে নির্বাচনী পরিবেশ সুষ্ঠু রাখতে সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। নির্বাচন কমিশন নিরপেক্ষভাবে কাজ করছে এবং করবে। অস্ত্র ও অস্ত্র ছাড়া আনসার বাহিনী মোতায়েন থাকবে।

তিনি বলেন, র‍্যাব-পুলিশ-বিজিবি প্রয়োজনের তুলনায় অনেক বেশি মোতায়েন করা হবে। আপনারা দেখবেন কিভাবে আমরা সিলেটকে নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দেই।

মতবিনিময় সভায় মেয়র প্রার্থীরা তাদের বক্তব্যে সিলেটের সার্বিক নির্বাচনী পরিবেশের প্রশংসা করেছেন। তবে তাদের দাবি এই পরিবেশ যেন অব্যাহত থাকে। নির্বাচন কমিশন যেনো সবার সাথে একচোখা নীতি অবলম্বন না করেন।

প্রার্থীদের দাবির বিপরীতে রফিকুল ইসলাম লিখিত অভিযোগ দেয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন। লিখিত অভিযোগ পেলে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেন তিনি।

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার ড. মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম বলেছেন, আমরা প্রশাসনের মানুষরা কোনোভাবেই কারোর পক্ষ নিয়ে কাজ করছি না। সার্বিক পরিস্থিতি যাতে সুষ্ঠু, স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষ থাকে, সেই দিকে লক্ষ্য রেখেই নির্বাচন কমিশন কাজ করে যাচ্ছে।

নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার আলীমুজ্জামনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে আরও উপস্থিত ছিলেন সিলেটের জেলা প্রশাসক নুমেরি জামান, সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার গোলাম কিবরিয়া প্রমুখ।

ad