সিলেটে বাসা থেকে মা-ছেলের লাশ উদ্ধার

lash uddhar
ad

স্থানীয় প্রতিনিধি: সিলেটের একটি বাড়ি থেকে মা ও ছেলের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় জীবিত অবস্থায় এক কন্যা শিশুকে উদ্ধার করা হয়েছে।

রবিবার (১ এপ্রিল) দুপুরে নগরীর মিরাবাজার খারপাড়া মিতালী আবাসিক এলাকার ১৫/জে নম্বর বাসা থেকে লাশ দুটি উদ্ধার করা হয়।

নিহতরা হলেন, রোকেয়া বেগম (৪০) ও তার ছেলে রবিউল ইসলাম রুপম।  রোকেয়া বেগমকে গলাকাটা অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। রুপমের শরীর অক্ষত ছিল।

এলাকাবাসী জানিয়েছেন, রোকেয়া বেগম জগন্নাথপুর উপজেলার হেলাল আহমদের স্ত্রী। স্বামীর সাথে বনিবনা না হওয়ায় ছেলে মেয়েকে নিয়ে তিনি আলাদা বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করতেন।

নিহত রোকেয়া বেগমের ভাই জাকির হোসেন জানান, রোকেয়া বেগমের সাথে গত শুক্রবার তার পরিবারের সদস্যদের সর্বশেষ যোগাযোগ হয়।  এরপর থেকে তার মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়। আজ সকালে তিনি খোঁজ নিতে রোকেয়ার বাসায় আসেন।  বাসার দরজা ভেতর থেকে বন্ধ পাওয়ায় তিনি বাসার মালিকের সাথে যোগাযোগ করেন।  বাসার মালিক বিকল্প চাবি দিয়ে ঘরে ঢুকে একটি কক্ষে মা-ছেলের লাশ পড়ে থাকতে দেখেন।  এ সময় তারা পুলিশে খবর দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।

পুলিশ জানিয়েছে, রোকেয়া বেগমের শরীরের বেশ কয়েকটি স্থানে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে।  প্রাথমিকভাবে তাদের ধারণা রোকেয়াকে গলাকেটে হত্যা ও ছেলে রুপম এবং মেয়ে রাইসাকে দুর্বৃত্তরা শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা করে। এর মধ্যে রুপম মারা গেলেও রাইসার জ্ঞান ফিরে আসে।

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া) মুহাম্মদ আব্দুল ওয়াহাব মরদেহ দু’টি উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

ad