সড়ক কেড়ে নিল ১০ পরিবারের ঈদ আনন্দ

Gaibandha, 2 buses, collision, 2 killed, 25 injured,
ad

জাগরণ ডেস্ক: ঈদের আগে দেশের পাঁচ জেলায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ১০ জন নিহত হয়েছে। এসব ঘটনায় আহত হয়েছে আরও ৩২ জন।

বৃহস্পতিবার (১৪ জুন) সকালে ও দুপুরে এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

রংপুর

জেলার কাউনিয়ায় একটি যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় তিন মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন এক পথচারী।

বৃহস্পতিবার (১৪ জুন) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার রেলগেট এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- আব্দুস সাত্তার সাক্কু (৫৫), আবুল কালাম (২৫) ও সোলেমান (২৮)।

কাউনিয়া থানার ওসি (তদন্ত) আবদুল আজিজ জানান, সকালে একটি যাত্রীবাহী বাস রংপুর থেকে কুড়িগ্রাম যাচ্ছিল। পথে কাউনিয়া রেলক্রসিং এলাকায় কুড়িগ্রামমুখী একটি মোটরসাইকেলকে পেছন থেকে চাপা দেয় ওই বাসটি। এতে ঘটনাস্থলেই দুজন এবং কাউনিয়া হাসপাতালে নেয়ার পর আরও এক আরোহীর মৃত্যু হয়।

তিনি জানান, এ ঘটনায় এক পথচারী আহত হয়েছেন। তাকে উদ্ধার করে একই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

কাউনিয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মামুন উর রশিদ বলেন, নিহতদের লাশগুলো উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে।

গাইবান্ধা

জেলার গোবিন্দগঞ্জে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুইজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও অন্তত ২৫ জন।

বৃহস্পতিবার (১৪ জুন) সকাল ৯টার দিকে উপজেলা চক্ষু হাসপাতালের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। হতাহতদের পরিচয় এখন পর্যন্ত জানা যায়নি।

গোবিন্দগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) শফিকুজ্জামান জানান, ঢাকা থেকে রংপুরগামী খালেক এন্টারপ্রাইজ বাসের সঙ্গে রংপুর থেকে ঢাকাগামী মায়ের আঁচল পরিবহনের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই দুইজন নিহত হন।

ওসি শফিকুজ্জামান জানান, এই দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ২৫ জন। আহতদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

কুমিল্লা

জেলার চান্দিনায় পিকআপ ভ্যানের ধাক্কায় সিএনজিচালিত অটোরিক্সার দুই যাত্রী নিহত হয়েছেন।  এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরও তিনজন।

বৃহস্পতিবার (১৪ জুন) উপজেলার পালকি সিনেমা হলের সমানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত দুইজনই নারী। তবে তাৎক্ষণিক তাদের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

চান্দিনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ শামসুল ইসলাম জানান, হতাহতদের পরিচয় এখনো জানা যায়নি। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গোপালগঞ্জ

জেলার কাশিয়ানী উপজেলায় বাসচাপায় অজ্ঞাতপরিচয় (৬৫) এক নারী নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (১৪ জুন) সকালে উপজেলার চাপতা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

গোপালগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম জানান, সকালে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের চাপতা এলাকায় রাস্তা পার হওয়ার সময় একটি বাস তাকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়। পরে অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

জামালপুর

সদর উপজেলায় দুটি অটোরিক্সার মুখোমুখি সংঘর্ষে দুইজন নিহত ও অন্তত তিনজন আহত হয়।সকালে উপজেলার দিগপাইত এলাকার জামালপুর-টাঙ্গাইল সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- জামালপুর শহরের মুন্সিপাড়া এলাকার বাসিন্দা মোশারফ হোসেন (৪২) ও অজ্ঞাতপরিচয় (৮) একটি শিশু। আহতদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

জামালপুর সদর থানার ওসি মো. নাছিমুল ইসলাম জানান, সকাল ৮টার দিকে দিগপাইতগামী একটি অটোরিক্সার সঙ্গে বিপরীতমুখী অপর একটি অটোরিক্সার সংঘর্ষ হলে পাঁচজন আহত হয়। পরে তাদের হাসপাতালে নেয়া হলে দুইজনের মৃত্যু হয়।

ad