জম্মু ও কাশ্মীরের ৫ জেলায় কারফিউ প্রত্যাহার

জম্মু ও কাশ্মীরকে দু'টি কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলে ভাগ করার ঘোষণার পরই অশান্তি এড়াতে উপত্যকায় ১৪৪ ধারা জারি করেছিল ভারত। তবে শুক্রবার কারফিউ শিথিল করায় জুম্মার নামাজ পড়তে দেখা যায় সাধারণ মানুষকে। যদিও সে সংখ্যা ছিল খুবিই নগন্য। কারফিউ তুলে দেওয়ার পরেই বেশ কয়েক স্থানে বিক্ষোভ হয়।

এমন পরিস্থিতিতেই শনিবার জম্মুর পাঁচ জেলায় কারফিউ প্রত্যাহার করা হয়েছে।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়, ১৪৪ ধারা তুলে নেওয়া হয়েছে, জম্মু, কাঠুয়া, সাম্বা, উধমপুর এবং রেইসি জেলাগুলি থেকে। এছাড়া ডোডা ও কিস্তওয়ারে নিয়ন্ত্রণ কিছুটা শিথিত করা হয়েছে। পাঁচ জেলায় স্কুল, কলেজ ফের চালু হয়েছে। পড়ুয়ারা স্কুলমুখী। তবে সরকারি দফতর গুলিতে উপস্থিতির হার তুলনায় কম।

সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে প্রশাসনের এক কর্তা বলেন, যে পাঁচটা জেলায় কারফিউ তোলা হয়েছে সখানে কাজকর্ম স্বাভাবিক ছন্দেই হয়েছে। ভয়ের কোনও বাতাবরণ নেই। এই জেলাগুলিতে ঝামেলার কোনো কথা এখনো শোনা যায়নি। তাই প্রশাসনের ১৪৪ ধারা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত।

তবে, জম্মুর এই পাঁচ জেলার মতো পরিস্থিতি উপত্যকার সর্বত্র নয়। সরকারি এক আধিকারিকের কথায় অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে এখনও পুঞ্চ, রামবান, রাজৌরিতে কারফিউ জারি রয়েছে। তবে, সেখানে জুম্মার নামাজে কোনও অসুবিধে হয়নি। পরিস্থিতি ভালোই। সেনা মোতায়েন রয়েছে।

তবে বিদেশী সংবাদ মাধ্যমগুলো বলছে ভিন্ন কথা। মার্কিন বার্তা সংস্থা অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস-এর খবর অনুযায়ী নামাজের পরে কিছু বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। বার্তা সংস্থাটি জানিয়েছে, নিরাপত্তা বাহিনীকে লক্ষ্য করে পাথর ছোড়া শুরু করে মানুষ। আধাসামরিক বাহিনী টিয়ার গ্যাস ও ছররা গুলি নিক্ষেপ করে তার জবাব দেয়।

নামাজ শুরুর আগে ছররা ও রাবার গুলিতে আহত অন্তত ৫০ জনকে শ্রী মহারাজা হরি সিং হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। শুক্রবারের বিক্ষোভের পর আরও কতজনের চিকিৎসার প্রয়োজন পড়েছে যোগাযোগ বিচ্ছিন্নতার কারণে তা জানা যায়নি। কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে সেখানকার পুরো রাজনৈতিক পরিমণ্ডল। বিক্ষোভ দমনের স্বার্থে শত শত রাজনৈতিক কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

জম্মু-কাশ্মীরের জেলা উন্নয়ন কমিশনার আংরেজ সিং রানা বলেন, গত সোমবার থেকে এখানে ১৪৪ ধারা জারি রয়েছে। তবে, রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় শুক্রবার থেকে পর্যায়ক্রমে নির্দিষ্ট সময়ের জন্য নিয়ন্ত্রণ শিথিল করা হচ্ছে। ভোদারওয়া শহর ও দোদা জেলার সংলগ্ন অঞ্চলগুলিতেও কারফিউ শিথিল করা হয়েছিল।

মন্তব্য লিখুন :