সেনা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ২ মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ

একজন মেয়ের কাছে সবচেয়ে নিরাপদ আশ্রয়স্থল হচ্ছে তার পরিবারই যদি হয় ভক্ষক তাহলে সে কোথায় যাবে। তার তো আর যাওয়ার জায়গা থাকে না।

এমনই এক লোমহর্ষক ঘটনা ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের মিরাটে। মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে সেনা সদস্যের বিরুদ্ধে। আর ধর্ষণে সহযোগিতা করতের ভিকটিমের মা।

জানা যায়, বেশ কয়েক মাস ধরেই অত্যাচার চলছিল। কিন্তু কেউ ঘুণাক্ষরেও টের পাননি মেয়েকে শারীরিক ভাবে হেনস্থা করছে খোদ তার বাবাই। ধর্ষণ ও শারীরিক হেনস্থার দায়ে অভিযুক্ত ৪২ বছরের সেনা জওয়ান। জম্মু-কাশ্মীরে পোস্টিং ছিল অভিযুক্তের। আপাতত তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পুলিশের দাবি, নির্যাতিতা লিখিতভাবে অভিযোগ দায়ের করেছেন। এমনকী তার ছোট বোনও একইরকম ভাবে নির্যাতনের শিকার সে কথাও রিপোর্টে লেখা হয়েছে।

নিগৃহীতা কিশোরীর দাবি, ধর্ষণের ঘটনার সময় তার মাও ছিলেন। কিন্তু সেই সময় তিনি কিছু বলেননি।

এদিন অভিযুক্ত জওয়ানকে আদালতে তোলা বলে তাকে আগামী সোমবার পর্যন্ত পুলিশ হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও পকসো আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন :