পশ্চিমবঙ্গ নির্বাচন: মমতা ২১৩, মোদি ৭৭

হ্যাটট্রিক করলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। বাংলা আরও একবার আস্থা রাখলো দিদির ওপরেই।

২১৩ আসন নিয়ে তৃতীয়বারের মতো রাজ্যে সরকার গঠন করতে যাচ্ছেন দিদি। তবে রাজ্যের ইতিহাসে এই প্রথম কোনো দল বিপুল আসনে জয়ী কিন্তু হেরে গেলেন দলের প্রধান। যদিও ঠিক কত ভোটে মমতা পরাজিত হয়েছেন সরকারিভাবে ঘোষণা হয়নি।

তবে ফলাফলে শিট দেখে ধারণা করা যাচ্ছে নন্দীগ্রামে মমতা ১৯৫৩ বা এর একটু ভোটে একটু কম ভোটে পরাজিত হয়েছেন। তবে হার যে হয়েছে সে কথা এক বাক্যে জানিয়ে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। 

অপরদিকে, বিজেপিকে এবারের মতো রথ থামাতে হয় ৭৭ আসন নিয়ে। ক্ষমতা দখল না করতে পারলেও গতবারের ৩ থেকে ৭৭টি আসন মোটেও খারাপ ফল নয়, এমটাই জানিয়েছন রাজ্য বিজেপির সভাপাতি দিলীপ ঘোষ।

তিনি বলেন, মানছি রাজ্যবাসী মমতাকেই চেয়েছেন। তাই এই ফল। তবে মমতাও পশ্চিমবঙ্গে একদিনে এই সফল পথ দেখেননি। বহু বছর পর ২০১১ সালে ক্ষমতায় আসেন। তবে একুশের নির্বাচন এও দেখালো দল জিতলেও সুপ্রিমো হারলো।  রাজ্যবাসীকে ধন্যবাদ আমাদের এতগুলি আসন দেওয়ার জন্য।

ফলে পশ্চিমবঙ্গে এখন বিরোধীদল বলতে শুধুই বিজেপি। ধুয়েমুছে সাফ হয়ে গেলো বাম এবং কংগ্রেস। একটি মুখ থাকছে না অ্যাসেম্বলিতে। মাত্র দক্ষিণ ২৪ পরগনার ভাঙড় আসনে একটি আসন পেয়েছে আব্বাস সিদ্দিকির দল ইন্ডিয়ান স্যেকুলার ফ্রন্ট।