চাবুক দিয়ে নারীদের পেটাল তালেবান

তালেবান ক্ষমতা দখলের পর থেকে নতুন এক চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে। তাদের ক্ষমতার পথে বড় কোনো বাধা না আসলেও বিভিন্ন এলাকায় নারীরা তালেবানবিরোধী বিক্ষোভ করে। সামনে এলো নারী আন্দোলনকারীদের প্রতি তালেবান সদস্যদের আক্রোশ। মোবাইলে ধারণকৃত একটি ভিডিও বর্তমানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

ভিডিও ধারণকারী ভুক্তভোগী জানান, গেলো সপ্তাহে ‘কার্ত-ই-শার’ এলাকায় অধিকার আদায়ের আন্দোলনে নামেন নারীরা। এ সময় তাদের প্রতিহতে তালেবান সদস্যরা চাবুক দিয়ে এলোপাথাড়ি মারতে থাকে। রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা পুরুষরাও পাননি নিস্তার। মার খেতে হয়েছে পরিচয় প্রকাশে অনিচ্ছুক ভিডিও ধারণকারীকেও। তার ক্যামেরা ভেঙে ফেলে তালেবান সদস্যরা।

এদিকে, তালেবান সদস্যরা মোবাইলসহ ধরতে গেলে ওই ব্যক্তি পালিয়ে যায়। পরে মোবাইলের ভিডিও প্রকাশ করেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

অন্যদিকে, নিজ দেশে তালেবান নতুন নিয়ন্ত্রণকর্তার আসনে বসার পর নারীর পোশাক-পরিচ্ছদের ওপর যে খড়গ নেমে এসেছে, তারই প্রতিবাদে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে #ডো নট টাচ মাই ক্লথ- ক্যাম্পেইন শুরু করেছেন তারা। খবর বিবিসির।

আফগানিস্তানের ঐতিহ্যবাহী বর্ণময় সব পোশাকে নিজেদের সাজিয়ে তারা হাজির হচ্ছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়।  ‘ডোন্ট টাচ মাই ক্লথ’ কিংবা ‘আফগানিস্তান কালচার’ হ্যাশট্যাগে ফেসবুক-টুইটারে চলছে এ প্রতিবাদ।

কট্টর ইসলামপন্থি তালেবান দুই দশক পর আফগানিস্তানে ক্ষমতায় বসার পর নারীর স্বাধীনভাবে চলার পথ হয়েছে সঙ্কুচিত।

তার প্রতিবাদে আফগান নারীরা যখন তালেবানের বন্দুকের সামনে দাঁড়িয়ে বিক্ষোভে নেমেছেন, ঠিক তখনই বিপরীত চিত্রে তালেবানের পক্ষ নিয়ে দুদিন আগে হিজাব-বোরকায় আচ্ছাদিত একদল নারীও কাবুলে সমাবেশ করে।