দ. কোরিয়ায় এক ছাত্রীকে ধর্ষণে অভিযুক্ত বাংলাদেশিসহ ৬৯ জন

দক্ষিণ কোরিয়ার একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬৯ জন বিদেশি শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ আনা হয়েছে। অভিযুক্তদের মধ্যে বাংলাদেশের শিক্ষার্থীও রয়েছেন।


এ ঘটনার পর অভিযুক্ত ৬৯ জন বিদেশি শিক্ষার্থীর ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে দেশটির পুলিশ।


ধর্ষণের ঘটনাটি প্রকাশ পায় গত আগস্টে। শিশুটি তার স্কুল শিক্ষকের সঙ্গে পরামর্শের সময় ঘটনা প্রকাশ পায়। পরবর্তীতে এ বিষয়ে পুলিশের কাছে অভিযোগ করা হয়।


স্থানীয় পুলিশের বরাত দিয়ে কোরিয়ান টাইমস জানায়, দেশটির গ্যাংওয়ান প্রাদেশিক পুলিশ এজেন্সির তদন্ত দল একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬৯ জন বিদেশি শিক্ষার্থীকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে।


পুলিশের মতে, স্ন্যাকসের প্রস্তাব দিয়ে এবং তাদের বাড়িতে আড্ডা দেওয়ার কথা বলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভুক্তভোগীকে যৌন সম্পর্কে প্রলুব্ধ করেছিল অভিযুক্তরা।


আইন প্রয়োগকারী কর্তৃপক্ষ এটিকে সংবিধিবদ্ধ ধর্ষণ হিসেবে দেখেছে। কারণ, অভিযুক্তরা জানতেন যে ভুক্তভোগী নাবালক। কোরিয়ান আইন অনুযায়ী, ১৬ বছরের কম বয়সী শিশুর সঙ্গে তার বয়স সম্পর্কে জেনেও যৌন সম্পর্ক করলে প্রাপ্তবয়স্কদের বিরুদ্ধে শিশু যৌন নির্যাতন বা ধর্ষণের অভিযোগ আনা হতে পারে।