বিশ্বাসঘাতকতার অভিযোগে ইউক্রেনের ২ শীর্ষ কর্মকর্তা বরখাস্ত

রুশ বাহিনীর সামরিক অভিযানের মুখে কার্যত বিপর্যস্ত ইউক্রেন। কোনো কৌশলেই যেন মস্কোর অগ্রযাত্রা থামাতে পারছে না কিয়েভ। এই পরিস্থিতিতে রাশিয়াকে সহযোগীতার অভিযোগে ইউক্রেনের প্রভাবশালী গোয়েন্দা সংস্থার প্রধানসহ ২ শীর্ষ কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।


সোমবার (১৮ জুলাই) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স ।


প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউক্রেনের প্রভাবশালী অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা সংস্থার (এসবিইউ) প্রধান এবং দেশের শীর্ষ প্রসিকিউটর জেনারেলকে রবিবার তাদের পদ থেকে বরখাস্ত করেছেন প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। এই দুই সংস্থার কর্মকর্তারা রুশ হামলায় সহযোগিতা করছেন এমন বহু অভিযোগের উদ্ধৃতি দিয়ে এই দুই শীর্ষ কর্তাকে পদ থেকে সরিয়ে দেয়া হয়।


রয়টার্স বলছে, ইউক্রেনের গোয়েন্দা সংস্থা এসবিইউ প্রধান ইভান বাকানভকে তার পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হলেও তিনি মূলত প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির শৈশবের বন্ধু। অন্যদিকে দেশটির শীর্ষ প্রসিকিউটর জেনারেল ইরিনা ভেনেডিক্টোভা রাশিয়ান যুদ্ধাপরাধের বিচারে মুখ্য ভূমিকা পালন করছিলেন। রবিবার নির্বাহী আদেশের মাধ্যমে প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি তাদেরকে বরখাস্ত করেন।


সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক পোস্টে জেলেনস্কি বলেন, বিচার ও আইন প্রয়োগকারী কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অন্তত ৬৫১টি গোপন ষড়যন্ত্র ও যোগসাজশের মামলা রুজু হয়েছে। এ ছাড়া বাকানভ ও ভেনেডিক্টোভার প্রতিষ্ঠানের আরো ৬০ কর্মকর্তা রাশিয়া অধিকৃত ভূখণ্ডে ইউক্রেনের বিরুদ্ধে কাজ করছে।


রাশিয়ার সঙ্গে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে এটিকে জেলেনস্কির সবচেয়ে বড় সিদ্ধান্ত বলে মনে করা হচ্ছে। তিনি বলেন, রাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তার ভিত্তির বিরুদ্ধে এই ধরনের অপরাধ অত্যন্ত গুরুতর প্রশ্ন তুলেছে। এই প্রশ্নের একটি সঠিক উত্তর পাবেন।


চাকরিচ্যুতদের মধ্যে রয়েছেন- প্রভাবশালী নিরাপত্তা বাহিনী স্লুজবা বেসপেকি ইউক্রেনির (এসবিইউ) প্রধান ইভান বাকানভ ও প্রসিকিউটার জেনারেল তথা প্রধান কৌঁসুলি ইরিনা ভেনেডিক্টোভা।