পাল্টে গেল ব্যাংক লেনদেনের সময়

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে চলমান সাধারণ ছুটির সময় দেশের তফসিলি ব্যাংকগুলোকে সীমিত আকারে চালু থাকা ব্যাংকের লেনদেন ও খোলা রাখার সময় কমাল কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

নতুন সময় সূচি অনুযায়ী, আগামী ১২ এপ্রিল থেকে সকাল ১০টা থেকে বেলা সাড়ে ১২টা পর্যন্ত গ্রাহক লেনদেন করতে পারবেন। আর ব্যাংক খোলা থাকবে দুপুর ২টা পর্যন্ত।

পাশাপাশি করোনার কারণে সরকার ও স্থানীয় প্রশাসন যেসব এলাকা লকডাউন করবে ওই এলাকায় সব ব্যাংকের সব শাখা বন্ধ থাকবে।

জানা গেছে, করোনায় ব্যাংক লেনদেনের সীমাবদ্ধতার পরও সীমিত পরিসরে সেবা দিয়ে আসছিল ব্যাংকগুলো, কিন্তু মার্কেন্টাইল ও অগ্রণী ব্যাংকের দুই কর্মকর্তার দেহে সংক্রমণ ধরা পড়ার পর ব্যাংকারদের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। বিষয়গুলো বিবেচনায় নিয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংক এ সিদ্ধান্ত নিয়ে বৃহস্পতিবার (৯ এপ্রিল) বাংলাদেশ ব্যাংকের ডিপার্টমেন্ট অব অফ-সাইট সুপরভিশন থেকে এ সংক্রান্ত এক সার্কুলার জারি করেছে।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, আগামী ১২ এপ্রিল থেকে দৈনিক ব্যাংকিং লেনদেন এবং লেনদেন পরবর্তী অনুষাঙ্গিক কার্যক্রম সম্পাদনের জন্য সময়সূচি যথাক্রমে সকাল ১০টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত এবং দুপুর ২টা পর্যন্ত পুনঃনির্ধারণ করা হলো।

এদিকে জরুরি বৈদেশিক লেনদেন করার জন্য নির্দিষ্ট ব্যাংক শাখার লেনদেনের সময়সীমা আধা ঘণ্টা কমিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। দুপুর ২টার পরিবর্তে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত চলবে বৈদেশিক শাখার লেনদেন।

সরকার ও স্থানীয় প্রশাসন প্রদত্ত ঘোষণা অনুসারে লকডাউন এলাকা ব্যাংকের শাখা বন্ধ থাকবে। এছাড়া ব্যাংকিং লেনদেনের জন্য খোলা রাখা শাখা ও প্রধান কার্যালয়ে নির্দিষ্ট দূরত্ব (ডব্লিউএইচও এর গাইডলাইন অনুযায়ী) বজায় রাখার বিষয়য়ে নির্দেশনা নিশ্চিত করতে হবে।