প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সাবাব লেদারের মাসজুড়ে নানান অফার

সপ্তম বর্ষে পদার্পণ করছে উদ্যোক্তা মাকসুদা খাতুনের সাবাব লেদার। ২০১৬ সালের ১ আগস্ট অরিজিনাল চামড়াজাতপণ্য নিয়ে যাত্রা শুরু করে প্রতিষ্ঠানটি। নানা প্রতিকূলতা পেরিয়ে আজ তার উদ্যোগ বিশ্ব সমাদৃত।


ছয় বছরের পথ চলায় আন্তর্জাতিক মানের চামড়াজাত পণ্য তৈরি করছে সাবাব লেদার ৷ কানাডা, স্পেন, মালয়েশিয়া, নেদারল্যান্ডস, জাপান, গ্রিস, ইতালি, ওমান এবং মরক্কোতে যাচ্ছে মাকসুদা খাতুনের পণ্য৷


দেশের বিভিন্ন কর্পোরেট সেক্টরেও নিয়মিত সাবাব লেদারের পণ্য যাচ্ছে। এছাড়া বিভিন্ন ব্র্যান্ডের সাথে যুক্ত হয়েছে সাবাব লেদার।


পণ্য তালিকায় রয়েছে জেন্টস ব্যাগ, লেডিস ব্যাগ, লং ওয়ালেট, মানি ব্যাগ, লেদার জ্যাকেট, বেল্ট, পাসপোর্ট হোল্ডার, টিস্যু বক্স, লেডিস পার্স, কি-রিং, অফিস ফাইল, অফিস ব্যাগ। নতুনভাবে যুক্ত হয়েছে ঘড়ির লেদার বেল্ট।


প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সাবাব লেদার এর স্বত্বাধিকারী মাকসুদা খাতুন বলেন, অনুভূতি বলে প্রকাশ করার মতো নয়, প্রচণ্ড ভালো লাগা কাজ করছে, একইসঙ্গে অনেক নতুন নতুন প্রত্যাশার জন্ম দিচ্ছে।


বিশেষ এই দিনটিকে কেন্দ্র করে উদ্যোক্তা তার ক্রেতা সাধারণের জন্য মাস জুড়ে অফার দিচ্ছেন। প্রতিটি পণ্যের সাথে থাকছে ৭% ডিসকাউন্ট এবং নিশ্চিত উপহার। এছাড়াও সরাসরি কারখানা পরিদর্শন করে যাচাই বাছাইয়ের মাধ্যমে পণ্য কেনাকাটা করার সুযোগও থাকছে।


তিনি বলেন, আমি স্বপ্ন দেখি সাবাব লেদার একদিন বড় ব্র্যান্ড হবে। প্রত্যেকে এক নামে চিনবে সাবাব লেদারকে অরিজিনাল লেদার পণ্য হিসেবে ৷


সপ্তম বর্ষে পদার্পণের এ সময়ে তিনি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, এসএমই ফাউন্ডেশন, বিসিক, চ্যানেল আই, ঐক্য ফাউন্ডেশন, বিডিওএসএন, চাকরি খুঁজবো না চাকরি দিবো সংগঠন, আনিসুল হক কোহর্ট, যুব উন্নয়ন- এই সকল প্রতিষ্ঠান সব সময় আমার পাশে ছিল বলেই আজ আমি এই পর্যন্ত আসতে পেরেছি। আমি আশা করি ভালোবাসা দিয়ে ভবিষ্যতেও আপনারা আমার পাশে থাকবেন ৷


উদ্যোক্তা মাকসুদা খাতুন তার উদ্যোগ সম্প্রসারণে এসএমই মেলা, আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা, বঙ্গবন্ধু লোকজ মেলাসহ বিভিন্ন আঞ্চলিক মেলায় অংশগ্রহণ করেছেন যা তাকে উদ্যোক্তা হিসেবে নতুন নতুন নেটওয়ার্ক দিয়েছে, তার উদ্যোগকে সম্প্রসারিত করেছে।