ইবিতে সংঘর্ষ, তদন্ত করবে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) শাখা ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের দফায় দফায় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করেছে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কমিটি।

বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) রাতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য নিশ্চিত হয়েছে।

দুই সদস্য বিশিষ্ট কমিটির সদস্যরা হলেন কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি নজরুল ইসলাম ও সমাজ সেবা বিষয়ক সম্পাদক শেখ স্বাধীন শাহেদ। তাদেরকে আগামী ১০ কার্যদিবসের মধ্যে সুপারিশসহ তদন্ত প্রতিবেদন কেন্দ্রীয় দপ্তর সেলে জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এদিকে, সংঘর্ষের ঘটনায় সেই দিনেই তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এতে হিসাববিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগের অধ্যাপক ড. শেলীনা নাসরিনকে আহ্বায়ক করে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের প্রভোষ্ট অধ্যাপক ড. তপন কুমার জোদ্দার এবং সহযোগী অধ্যাপক আবু হেনা মোস্তফা জামালকে সদস্য করা হয়। এ কমিটিকে সাত কার্যদিবসের মধ্যে উপাচার্য অধ্যাপক হারুন-উর-রশিদ আসকারী বরাবর তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়।

উল্লেখ্য, গত ২১ জানুয়ারি (মঙ্গলবার) দুপুরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি রবিউল ইসলাম পলাশ ও সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিবসহ উভয় গ্রুপের প্রায় ২০ নেতা-কর্মী আহত হয়। পরে ওই দিন বিকেলেই সাধারণ সম্পাদক রাকিবকে আহতাবস্থায় কুষ্টিয়া মডেল থানা পুলিশ আটক দেখায়। ঘটনার পর থেকে ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের দু'গ্রুপের মধ্যে অস্থিতিশীল অবস্থা বিরাজ করছে।