শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে বাকৃবি'র চার ছাত্র বহিষ্কার

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানি করায় ৪ ছাত্রকে বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

রবিবার (২২ মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে ওই ৪ ছাত্রকে বহিষ্কারের কথা জানানো হয়।

বহিষ্কার হওয়া ছাত্ররা হলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের নাসির উদ্দিন, ভেটেরিনারি অনুষদের শিক্ষার্থী মোবাশ্বের হোসেন ও শামীম রেজা এবং কৃষি অনুষদের সাফায়েতুল ইসলাম। 

জানা যায়, গত ২০ জানুয়ারি সন্ধ্যায় এক ছাত্রীর পিছু নিয়ে উত্ত্যক্ত করতে থাকেন ওই চার শিক্ষার্থী। তখন ওই ছাত্রী তার পরিচিত আরেক শিক্ষার্থী হাসিবুল হাসানকে বিষয়টি জানান। হাসিবুল হাসান বিশ্ববিদ্যালয়ে ঘটনাটির ব্যপারে জিজ্ঞাসা করতে গেলে ওই চারজনের সঙ্গে হাসিবুলের বাকবিতণ্ডা ও হাতাহাতি শুরু হয়। এ সময় চার শিক্ষার্থীর হাতে বেধরক মারধরে শিকার হন হাসিবুল। এ ঘটনায় ওই চারজনকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়েছিল।

ঘটনার প্রেক্ষিতে এখন নাসির উদ্দিনকে আজীবন এবং বাকি তিনজনকে ছয় মাসের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের বোর্ড অব রেসিডেন্স অ্যান্ড ডিসিপ্লিন কমিটির সভায় বাকৃবির অর্ডিনেন্স ফর স্টুডেন্টস ডিসিপ্লিনের ১৩ নম্বর ধারা অনুযায়ী ছাত্র শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে তাদের এ শাস্তি দেয় হয়।

এ ঘটনার অধিকতর তদন্ত করতে ফসল উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর ড. এ কে এম জাকির হোসেনকে আহ্বায়ক করে পাঁচ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠন করেছিল বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। সেই কমিটি থেকে তাদের চুড়ান্ত শাস্তি দেয়া হয়।