এক মাসের শিশুকে রাস্তায় রেখে পালালেন মা!

পঞ্চগড় জেলা শহরের কামাতপাড়া এলাকার একটি গলি থেকে একমাস বয়সী এক কন্যাশিশুকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) রাত ৮টায় ওই শিশুকে সেখানে পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা।

পঞ্চগড় সদর থানা পুলিশ এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। শিশুটি বর্তমানে সুস্থ আছেন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

শিশুটির মা শিশুটিকে ওই স্থানে রেখে পালিয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হয়েছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, ওই শিশুটির মা রিমু আক্তার। স্বামীর বাড়ি দিনাজপুর জেলার পার্বতীপুর এলাকায়। ওই নারীর বাবার বাড়ি পঞ্চগড় সদর উপজেলার ভিতরগড়।

প্রায় দেড় বছর পর রিমু তার শিশু সন্তানকে নিয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় হঠাৎ তার নানার বাড়ি পঞ্চগড় জেলা শহরের কামাতপাড়া এলাকায় আসে।

কামাতপাড়া এলাকার পেয়ারা মজুমদার নামে এক গৃহবধূকে তার কন্যা সন্তানটিকে রাখতে বলেন। কিন্তু তিনি বিরক্তি প্রকাশ করে তাকে পরে আসতে বলেন।

রাত ৮টার দিকে কামাতপাড়া এলাকার অশোক চন্দ্র মোদকের বাড়ির সামনে ওই কন্যাশিশুটিকে পড়ে থাকতে দেখেন ওই এলাকার জুয়েল ও তার মা জুলেখা খাতুন। পরে তারা পুলিশকে বিষয়টি জানায়।

খবর পেয়ে পুলিশ শিশুটিকে উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। ধারণা করা হচ্ছে- ওই শিশুর মা তাকে রেখে পালিয়ে গেছেন।

এদিকে শিশুটিকে একপলক দেখার জন্য হাসপাতালে ছুটে যান বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ। খবর পেয়ে পঞ্চগড় জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন ও পুলিশ সুপার ইউসুফ আলী শিশুটিকে দেখতে হাসপাতালে যান।

এসময় জেলা প্রশাসক শিশুটিকে কোলে নিয়ে আদর করেন এবং দেখাশোনায় প্রয়োজনীয় সকল ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন।

অন্যদিকে শিশুটিকে দত্তক নেওয়ার জন্য হাসপাতালে নিঃসন্তান দম্পতিদের ভিড় পড়ে যায়। তবে এখন পর্যন্ত শিশুটির মাকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। পুলিশ তাকে খুঁজে বের করার জন্য বিভিন্নভাবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালের চিকিৎসক সিরাজউদ্দৌলা পলিন জানান, শিশুটি হাসপাতালের শিশু পরিচর্যা কেন্দ্রে সুস্থ আছে।