নারীর পেটের ভিতর ইয়াবার কারখানা!

মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে এক নারী মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে ময়মনসিংহ জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি পুলিশ)। এ সময় তার পেটের ভেতর থেকে ২ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

শুক্রবার (১১ অক্টোবর) রাতে নগরীর দিঘারকান্দা বাইপাস এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। শনিবার ওই নারীকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

আটক আয়েশা সিদ্দিকা ওরফে সানি কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার মৃত শামসুল হকের মেয়ে।

ময়মনসিংহ জেলা গোয়েন্দা শাখার ওওসি শাহ কামাল আকন্দ জানান, ডিবি পুলিশ নিয়মিত মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে আসছে। শুক্রবার গোপন সংবাদের পুলিশ জানতে পারে, কক্সবাজারের এক নারী মাদক ব্যবসায়ী তার পেটের ভিতরে ইয়াবা বহন করে ময়মনসিংহে বিক্রি করতে এসেছে।  

তিনি জানান, ওই সংবাদের ভিত্তিতে নগরীর দিঘারকান্দা বাইপাস অভিযান পরিচালনা করে মোড় রেজা সিএনজি ফিলিং ষ্টেশনের সামনে থেকে নারী মাদক ব্যবসায়ী আয়শা সিদ্দকা ওরফে সামিকে আটক করে। পরে তাকে ডিবি অফিসে নিয়ে এসে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে সে পুলিশকে জানায় তার পেটের ভিতর ২ হাজার পিস ইয়াবা রয়েছে। যা পৃথক ৪০টি করে পুটলা বানিয়ে অভিনব কায়দায় গিলে ফেলা হয় এবং পেটের মধ্যেই রয়েছে। এক পর্যায়ে ডিবি পুলিশ ওই নারীকে ওষুধ খাইয়ে তা বের করে আনে।

ওই মাদক ব্যবসায়ী মহিলার বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদক আইনে মামলা করা হয়েছে বলে জানান তিনি।