ফাঁদে ফেলে আপত্তিকর ছবি তুলে ব্লাকমেইল করাই তাদের কাজ

রাজশাহীতে প্রতারণা চক্রের সদস্য তিন নারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্ট এলাকা থেকে মতিহার থানা পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার তেগাছি এলাকার মেহের হোসেনের মেয়ে মর্জিনা বিবি (৩৫), তার সহযোগি নগরীর কেদুর মোড় এলাকার তসলিমার মেয়ে সুমি বেগম (৩০) ও টিকাপাড়া এলাকায় মর্জিনা বেগম (৩০)।

মতিহার থানার অফিসার ইনচার্জ হাফিজুর রহমান হাফিজ বলেন, নগরীর কেদুর মোড় এলাকার সুমির বাড়িতে রাজশাহী সোনালী ব্যাংক আলুপট্টি শাখার সিনিয়র অফিসার একরাম হোসেনকে ডেকে নিয়ে যায়। পরে তাকে ফাঁদে ফেলে জাপটে ধরে জোরপূর্বক ছবি ধারণ করে। এ নিয়ে তাকে ব্লাকমেইল করার চেষ্টা করে তিন নারী প্রতারক। এই ঘটনায় একরামের ছেলে ইমরান বাদী হয়ে নগরীর মতিহার থানায় মামলা দায়ের করেন।

ওসি বলেন, গত ১৫ অক্টোবর এ মামলাটি দায়ের করা হয়। মামলা দায়েরের পর থেকে তাদের গ্রেপ্তারের জন্য চেষ্টা চালানো হচ্ছিল। তাদের সনাক্ত করার পর গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

জানাগেছে, গ্রেপ্তারদেরকৃতদের টার্গেটই হচ্ছে সাধারণ মানুষকে নানা প্রলোভনে ফেলে তাদের সাথে জোরপূর্বক আপত্তিকর ছবি তোলা। এরপর ওই ছবি দিয়ে চলে ব্লাকমেইল।