ডোমারে গুজবে লবণ কেনার হিড়িক

পেঁয়াজের মতো লবণের দামও বাড়বে। এই গুজবে নীলফামারী জেলার ডোমারে হঠাৎ করেই লবণ কেনার হিড়িক পরে গেছে। 

মুহুর্ত্তেই দোকানগুলোতে শুন্য হয়ে পরেছে লবণ। দুই থেকে দশকেজি পর্যন্ত লবন কিনছেন ক্রেতারা। আর পশুর জন্য একমন লবণও কিনছেন কোন কোন ক্রেতা। 

ক্রেতারা বলছেন লবণের দাম বেড়ে যাবে তারা শুনেছেন। একশত টাকার উপরে উঠবে লবনের দাম তাই আগাম প্রস্তুতি হিসেবে তারা বেশি করে লবণ কিনে রাখছেন। 

তবে কোথায় শুনেছেন দাম বেড়ে যাবে এই কথার কোন জাবাব দিতে পারেননি তারা। 

মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) দুপুর থেকে উপজেলার মুদি দোকানগুলোতে লবন কিনতে মানুষের ভিড় দেখা যায়। 

লবণের দাম বেড়ে যাবে এই কথা গুজব আকারে ছড়িয়ে যাওয়ার পর পরেই মানুষজন ভিড় করছেন মুদি দোকানগুলোতে। ডোমার শহরের চন্দনের মুদি দোকানে গিয়ে দেখা যায় মানুষের সারি। সবাই লবনের জন্য দাড়িয়ে রয়েছেন। তবে খুচরা মূল্য অনুযায়ী লবন বিক্রি হচ্ছে সেই দোকানে। ক্রেতা শাওনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন এমআরপি মুল্যে লবণ ক্রয় করেছেন তিনি। 

এদিকে লবনের কেনার হিড়িক জানতে পেরে ডোমার থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মোস্তাফিজার রহমান শহরের দোকানগুলোতে গিয়ে গুজবে কান না দেওয়ার জন্য ক্রেতাদের বলেন। 

তিনি জানান দেশে পর্যাপ্ত লবন মজুদ রয়েছে। তাই কারো কথায় বিভ্রান্ত হবেন না। তাছাড়া ডোমার থানার বিভিন্ন অফিসারগন বাজার মনিটরিং করে দাম বেশি না নিতে দোকানদেরকে অবগত করছেন। তবে বাজারের বিভিন্ন দোকানগুলোতে চুপিসারে কেজি প্রতি দুই ও পাঁচটাকা বেশি দামে লবন বিক্রি করতে দেখা গেলেও প্রশাসন মাঠে নামায় তারা এমআরপি মুল্যেই লবণ বিক্রি করছে। ডোমার বাজারের বেশকিছু দোকানেই এক ঘন্টায় লবন বিক্রি শেষ হয়ে গেছে। ক্রেতারা সেসব দোকানে গিয়ে লবন না পেয়ে অন্য দোকানে লবণ কেনার জন্য ভির করছেন। প্রশাসন মাঠে থাকায় অনেক দোকানদার ভয়ে দোকান বন্ধ করে রেখেছেন।