সেনা সদস্য পরিচয়ে বিয়ে করতে গিয়ে বেদম পিটুনি খেল বর

জামালপুরের ইসলামপুরে সেনা সদস্য পরিচয়ে বিয়ে করতে গিয়ে এক সহযোগীসহ এক যুবক গ্রেপ্তার হয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে উপজেলার পাথর্শী ইউপির শশারিয়াবাড়ি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

গ্রেপ্তার হারুন অর রশিদ (৩০) জামালপুর সদর উপজেলার বালু আটা গ্রামের জামাল উদ্দিনের ছেলে।

ইসলামপুর থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, মঙ্গলবার রাতে পাথর্শী ইউনিয়নের শশারিয়াবাড়ি গ্রামের এক কলেজ ছাত্রীকে বিয়ে করতে যান হারুন। তিনি নিজেকে সেনা সদস্য দাবি করেছিলেন। তবে বিয়ের আসরে বর ও তার আত্মীয়দের সাথে কথা বলে কনেপক্ষের লোকজনের সন্দেহ হয়। তিনি সেনাবাহিনীতে চাকরি করেন কিনা তা জানতে চায় কনেপক্ষ।

তিনি জানান, এ সময় বরের মোবাইলে থাকা সেনাবাহিনী সদস্য পদের আইডি কার্ড দেখায় হারুন। আইডির নম্বরটি যাচাই করতে গিয়ে কনেপক্ষ দেখে সেটি সাকিব নামে একসেনা সদস্যর। ভুয়া পরিচয়ে বিয়ে করতে এসছে এ খবর ছড়িয়ে পড়লে লোকজন বর ও তার এক সহযোগীকে আটক করে পিটুনি দেয়।

পরে ইউপি চেয়ারম্যান ইফতেখার আলম বাবলুর মাধ্যমে খবর পেয়ে রাতেই হারুন অর রশিদ ও তার এক সহযোগীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ, জানান তিনি।