গোপালগঞ্জের জয় বিশ্বাসকে হত্যা করে তার সৎ মা

গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামের শিশু জয় বিশ্বাসকে (৭) তার সৎ মা আখি বিশ্বাস (২০) গলা টিপে হত্যা করেছে বলে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। পরে তার লাশ বাড়ির পাশের একটি পুকুরে ফেলে দিয়ে আসে বলে জানায়।

গোপালগঞ্জ চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট হুমায়ুন কবিরের আদালতে বুধবার সন্ধ্যায় ওই ঘাতক হত্যার কথা স্বীকার করে।

গোপালগঞ্জ সদর থানার এসআই ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সাখাওয়াত হোসেন মৃধা জানান, হত্যাকারী আদালতে স্বীকারোক্তিতে জানিয়েছে, গত ২৮ নভেম্বর সন্ধ্যার পর জয়কে পড়ালেখা নিয়ে ঘাড়ে আঘাত করলে সে বেহুশ হয়ে যায়। পরে গলা টিপে তার মৃত্যু নিশ্চিত করে সবার অলক্ষ্যে বাড়ির পাশে পুকুরে ফেলে দেয়।

এ ঘটনায় পুলিশ সন্দেহবশত সৎ মা আখি বিশ্বাসকে আটক করে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে পুলিশের কাছে প্রথমে ও পরে আদালতে এই হত্যার কথা স্বীকার করে।

এর আগে গত ৩০ নভেম্বর শনিবার বাড়ির পাশের একটি পুকুর থেকে ভাসমান অবস্থায় নিহত জয় বিশ্বাসের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এর দুই দিন আগে সে বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়।