ফুলবাড়ীতে মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী-কন্যাকে মারধর, ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা

দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে এক মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী ও কন্যাকে মারপিটের ঘটনায় মিটার রিডার শাহেদ ইসলামসহ তিন জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

বুধবার রাতে মুক্তিযোদ্ধার বিধবা স্ত্রী মমেনা বেওয়া বাদী হয়ে ফুলবাড়ী থানায় এই মামলা দায়ের করেন।

জানা গেছে, গত মঙ্গলবার বিকালে পৌর এলাকার উত্তর সুজাপুর গ্রামে বিদ্যুৎ বিলকে কেন্দ্র করে, নর্দান ইলেক্ট্রিক সাপ্লাই (নেসকো) এর ফুলবাড়ী আবাসিক বিদ্যুৎ সরবরাহ কেন্দ্রের মাষ্টার রোলের কর্মচারী মিটার রিডার শাহেদ ইসলামসহ তার সঙ্গীরা, মুক্তিযোদ্ধা মৃত মতিয়ার রহমানের স্ত্রী মমেনা বেওয়া (৫৮) ও কন্যা জোরাইয়া বেগমকে মারপিট ও লাঞ্চিত করে।  ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওই দিন সন্ধ্যায়, ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুস সালাম চৌধুরী ও নেসকোর ফুলবাড়ী বিদ্যুৎ সরবরাহ কেন্দ্রের আবাসিক প্রকৌশলী উজ্জল আলী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন ও হামলাকারী মিটার রিডারকে চাকরি থেকে বাদ দেয়।

এই ঘটনায় গত বুধবার রাতে ফুলবাড়ী থানায় মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী মমেনা বেওয়া বাদী হয়ে পশ্চিম গৌরী পাড়া গ্রামের মোফাজ্জলের ছেলে মিটার রিডার শাহেদ ইসলাম (২৭), তার সঙ্গী উত্তর সুজাপুর গ্রামের মোস্তাকিনের ছেলে রহিম (২৮) ও একই এলাকার জিয়াউরকে (৩০) আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

ফুলবাড়ী থানার ওসি ফকরুল ইসলাম বলেন, ঘটনার পর থেকেই মিটার রিডার শাহেদ ইসলামসহ আসামিরা পলাতক থাকায় এখন পর্যন্ত কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। তবে পুলিশ তাদের গ্রেপ্তারের জন্য তৎপর রয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুস সালাম চৌধুরী বলেন, হামলাকারী মিটার রিডার শাহেদ ইসলামকে ওই দিন রাতে চাকরি থেকে বাদ দেয়া হয়েছে এবং তাদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়েছে।