ডোমারে গোটা স্কুলঘর চুরি

নীলফামারীর ডোমারে একটি নির্মাণাধীন স্কুল ঘর রাতের আধারে চুরি করে নিয়ে গেছে দৃর্বত্তরা। সেইসাথে বই, স্কুলের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও ফরম বিক্রির গচ্ছিত টাকানিয়ে গেছে সেইসব দুর্বৃত্তরা।

শুক্রবার ভোর রাতে উপজেলার পাঙ্গা মটুকপুর ইউনিয়নের মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজরিত মটুকপুর সপ্তর্ষী নি¤œ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এই ঘটনাটি ঘটে।

স্কুলের নৈশ প্রহরী রশিদুল ইসলাম জানান, রাতে স্কুল পাহাড়া দেওয়ার সময় স্থানীয় মনতাউ, হামিদুর, শামীম ও বাবলু স্কুলে প্রবেশ করে আমার কাছে জানতে চায় স্কুলে রাতে কে কে থাকে। আমি একাই থাকি স্কুলে বলার পর তারা চলে যায়। এর একঘন্টা পর আমি স্কুলে জোরে জোরে শব্দ শুনতে পাই। আমি টর্চ লাইট নিয়ে স্কুলের পাশে নির্মানাধীন স্কুল ঘরের কাছে গিয়ে দেখতে পাই প্রায় ত্রিশ/চল্লিশ জনের একটি দল স্কুলঘরটি ভেঙে নিয়ে যাচ্ছে। আমাকে দেখতে পেয়ে মনতাউ, শুভ, হামিদুর ও শামীম মেরে ফেলার হুমকি দেয়। আমি ভয়ে সেখান থেকে পালিয়ে দাতা সদস্য দুলাল হোসেনকে ঘুম থেকে জেগে তুলে ঘটনা অবহিত করি।

নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়টি মুক্তিযুদ্ধের স্মৃত্তি বিজরিত একটি স্কুল। স্কুলটি বর্তমানে মটুকপুর বারোগোলা দূর্গা ও কালী মন্দিরের জায়গায় ভাড়া নিয়ে চলছে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অভয় চন্দ্র রায় এই ঘটনার বিচার দাবি করেছেন।

ডোমার থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) বিশ্বদেব রায় ঘটনা শুনেছেন বলে জানান। সেই সাথে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে বলেও তিনি জানিয়েছেন।