লাল সবুজের ফেরিওয়ালা কলেজ ছাত্র রোমান

মহান বিজয় দিবস উদযাপনের জন্য সারা দেশের ন্যায় প্রস্তুত ডোমারবাসী। মুক্তিকামী বাঙ্গালী তাদের বুকের তাজা রক্তের বিনিময়ে ১৬ ডিসেম্বর ছিনিয়ে এনেছিল বিজয়।পরাজিত হয় পাক হানাদার বাহিনী। 

বিজয়ের এই মাসকে স্মরণ করতে দেশের সকল শ্রেনী পেশার মানুষের হাতে লাল-সবুজের পতাকা পৌছে দিতে এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে ছুটে ছলছেন লাল-সবুজের ফেরিওয়ালা রোমান(১৭)। 

বিজয়ের এই মাসে সুদুর ফরিদুর থেকে এসেছেন উত্তরের সর্বশেষ উপজেলা ডোমারে। ডোমারের প্রতিটি অলিতে-গলিতে ,স্কুল-কলেজের সামনে পতাকা বিক্রি করে সে। 

রোমান ফরিদপুর জেলার নগরকান্দা উপজেলার মোঃ সাত্তার মুনশির ছেলে ও নারায়নগঞ্জ কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র। 

লেখাপড়ার পাশাপাশি মৌসুমি ব্যবসা করে সংসারে সহযোগীতা করে সে। 

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে একটি বাশেঁর সাথে ছোট-বড় লাল-সবুজের পতাকা বেধে বিক্রয় করছে রোমান। লাল-সবুজের এই ফেরিওয়ালার কাছ থেকে পতাকা কিনছেন অনেকেই।

রোমান জানান, তারা চার ভাইয়ের মধ্যে সে তৃতীয়। বছরে অন্য সময়ে ফরিদপুরে মৌসুমি ব্যবসায়ী হয়ে বাবাকে সহযোগীতা করে থাকেন। বিজয় দিবস আসলেই পতাকা নিয়ে সে বেরিয়ে পরে। গত ১১ ডিসেম্বর প্রায় দেড় হাজার পতাকা নিয়ে সে ডোমারে আসে। তার সাথে পতাকা নিয়ে আসে আরো দুইজন। 

তিনজনেই প্রায় ৫ হাজার পতাকা নিয়ে এসেছে বলে রোমান জানান। অন্যান্য বারের তুলনায় এবার পতাকা বিক্রি কম হচ্ছে বলে জানিয়ে সে বলে ফরিদপুর থেকে এখানে এসে কয়েকদিন পতাকা বিক্রি করে যা আয় হবে তা সংসারের কাজে লাগবে। 

তাছাড়া পতাকা বিক্রি করাটা তার কাছে গৌরবের বলে সে জানায়।