কুড়িগ্রামে বিপিএল নিয়ে বাজি, গ্রেপ্তার ১৯

কুড়িগ্রামে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ (বিপিএল) টি-টুয়েন্টি ক্রিকেটে জুয়ার বাজি খেলারত অবস্থায় ৮৯জনকে আটক করেছে পুলিশ। এসময় ২৮ হাজার ৭৮০টাকা, ২১টি মোবাইল সেট, ৭টি টিভি ও ১টি ক্যারামবোর্ড জব্দ করা হয়। বাজীকরদের বিরুদ্ধে জুয়া আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মেনহাজুল আলম জানান, শুক্রবার (৩ জানুয়ারি) কুড়িগ্রাম সদর, নাগেশ্বরী ও উলিপুর থানা পুলিশ এবং ডিবি পুলিশ বিশেষ অভিযান চালিয়ে জেলের বিভিন্ন জায়গা থেকে বিপিএলে জুয়ার বাজি খেলার সময় ৮৯ জনকে গ্রেপ্তার করে।

উলিপুর উপজেলায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রবেশনার) উলিপুর সার্কেলের আল মাহমুদের নেতৃত্বে বিপিএলে জুয়া বিরোধী অভিযান চালিয়ে ৩৩ জনকে আটক করে। আটককৃতদের মধ্যে হাতিয়া ইউনিয়নের চৌমহনি থেকে ৪ জন, ধামশ্রেণি ইন্দ্রারপাড় থেকে ৭ জন ও পৌরসভার কাজিরচক থেকে ২২ জনকে আটক করে। এসময় ১৮টি মোবাইল সেট, ৩টি টিভি ও ১টি ক্যারামবোর্ড জব্দ করে। এছাড়াও ডিবি পুলিশ উলিপুর উপজেলার ময়নার বাজারে মোনায়েম এর হোটেলে অভিযান চালিয়ে বিপিএল জুয়া খেলারত ১৯ জন জুয়ারীকে গ্রেপ্তার করে।

অপরদিকে নাগেশ্বরী উপজেলায় এএসপি আশরাফ আলীর নেতৃত্বে উপজেলার মনিয়ারহাট, কান্দুরাহাট ও দীঘিরপাড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৯ জুয়ারীসহ ৩টি মোবাইল ও ২টি টিভি জব্দ করে। কুড়িগ্রাম সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মাহফুজার রহমানের নেতৃত্বে সদর উপজেলার কাঁঠালবাড়ী থেকে ১৮ জন ও মোগলবাসা থেকে ২৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় ১টি টিভি ও ১টি মোবাইলসেট উদ্ধার করা হয়।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মেনহাজুল আলম আরও জানান, 'বিভিন্ন জায়গা থেকে আমরা অভিযোগ পাচ্ছি। এই অভিযান অব্যাহত থাকবে। আটককৃতদের বিরুদ্ধে জুয়া আইনের আওতায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।