সেনবাগে স্ত্রী হত্যায় স্বামীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

নোয়াখালীর সেনবাগ স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামী মহিন উদ্দিন খাজাকে (৩৬) যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে জেলা ও দায়রা জজ আদালত। একই সঙ্গে ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ডেরও আদেশ দেওয়া হয়। 

বুধবার (১৫ জানুয়ারি) বিকালে আসামির উপস্থিতিতে জেলা ও দায়রা জজ সালেহ উদ্দিন আহমেদ এ আদেশ দেন। 

দন্ডপ্রাপ্ত আসামি সেনবাগ উপজেলার পূর্ব কালা রাইতা গ্রামের মৃত আবুল হাসেমের ছেলে। 

জানা যায়, ২০১৫ সালের ৬ এপ্রিল সেনবাগের কালা রাইতা গ্রামে স্বামীর বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয় জহুরা বেগম বেবি। পরবর্তীতে প্রায় এক মাস পর একই বছরের ৫ মে স্বামীর বাড়ির পার্শ্ববর্তী একটি ডোবা থেকে বেবির মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরে নিহতের স্বামীসহ ৭জনকে আসামি করে তার মা আজিবা খাতুন সেনবাগ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। 

পরে পুলিশ তদন্ত শেষে স্বামীসহ তিনজনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট দেন। পরবর্তীতে ১৬৪ ধারায় আসামী নিজেই খুন করেছেন বলে স্বীকারোক্তি দিলে অপর আসামিদের মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। পরে আদালত দীর্ঘ শুনানী শেষে বুধবার এ আদেশ দেন। 

স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন কারাদন্ডের কথা নিশ্চিত করেন পাবলিক প্রসিকিউটর এড. গুলজার আহমেদ জুয়েল। 

তিনি জানান, আদেশকালে আসামী আদালতে উপস্থিত ছিলেন। আসামি পক্ষে শুনানী করেন এড. মৃণাল কান্তি পাল।