করোনার বিরুদ্ধে অভিযানে ভ্যান চালক

প্রাণঘাঁতী করোনাভাইরাস তথা বিশ্বে মহামারি হতে আমাদের বাঁচতে হলে পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা, সাবধানতা এবং সচেতনতার কোন বিকল্প নাই। আর এই চিন্তা ও সাবধানতাকে সামনে রেখে করোনার বিরুদ্ধে অভিযানে মাথায় পলিথিন, মুখে মাস্ক, পিঠে স্প্রে  মেশিন নিয়ে মাঠে নেমেছেন ভ্যান চালক ছত্তর মিয়া।

প্রতিদিন সকাল থেকে তার অভিযান শুরু হয়ে চলে রাত ৮টা পর্যন্ত।

ছত্তর মিয়ার বাড়ি ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলা ৭নং বাকতা ইউনিয়নের নিশ্চিন্তপুর গ্রামে। তিনি পেশায় একজন ভ্যান চালক।

জানা যায়, ছত্তর মিয়া করোনার প্রাদুর্ভাব ছড়িয়ে পড়ার সাথে সাথে কয়েকদিন যাবত উপজেলার কেশরগঞ্জ বাজার, নিশ্চিন্তপুর বাজারসহ বিভিন্ন বাজারের ষ্টেশনে রাস্তায়, অটো, সিএনজি, বাইক, বড় বড় গাড়ি, ড্রেন ও নর্দমায় নিজ খরচে স্প্রে করে পরিষ্কার করছেন।

যে সকল জনবহুল এলাকায় বা স্থানে প্রতিদিনই নানান শ্রেণি ও পেশার অসংখ্য মানুষের আনাগোনা লেগেই থাকে সে সব এলাকায় বা স্থানে ছত্তর মিয়ার অভিযান চলে জোরদার।

তার এমন মহৎ উদ্যোগ দেখে সমাজ সচেতন ও বাজারবাসী সবাই খুশি। জানিয়েছেন তাকে সাধুবাদও।

ছত্তর মিয়া বলেন, এ দুর্যোগ মোকাবেলায সারা দেশের মানুষকে মোকাবেলা করতে হবে। সরকারের একার পক্ষে এ দুর্যোগ মোকাবেলা সম্ভব নয়। এ দুর্যোগ মোকাবেলায় সারা দেশের মানুষকে এক হয়ে কাজ করতে হবে। তাই আমি আহ্বান জানাবো সবাইকে দল মত ধর্ম নির্বিশেষে একত্রিত হয়ে এ দুর্যোগ মোকাবেলা করতে।

একজন ভ্যান চালক হয়েও এমন মানবসেবা ও সচেতনতা এবং মানব কল্যাণে অবদান রাখা যায় তার প্রমাণ দিলেন ছত্তর মিয়া। যা মানুষের ভালোবাসা ও প্রশংসা কুড়াতে দাবি রাখে।