কালিগঞ্জে ধর্ষণের শিকার ছাত্রীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন

আদালতে অপহরণের পর ধর্ষণ মামলা দায়েরের প্রেক্ষিতে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ সলিমুন্নেছা গার্লস হাইস্কুলের দশম শ্রেণির এক ছাত্রীর (১৫) ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

শনিবার দুপুরে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ওই স্কুল ছাত্রীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়।

কালীগঞ্জ উপজেলার তৈলকুপ গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে আব্দুল্লাহ নামে এক বখাটে ওই ছাত্রীকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। ওই ছাত্রীও ইয়াবা আসক্ত বলে পুলিশ মনে করছে।

ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে আসা কালীগঞ্জ থানার এসআই আশিক জানান, চাপালি গ্রামের ওই মেয়েটিকে বখাটে আব্দুল্লাহ নিয়ে যায়। মেয়েটির বয়স ১৮ বছর না হওয়ায় তার পিতা আদালতে মামলা করেন। আদালতের নির্দেশে শনিবার ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ওই স্কুল ছাত্রীর ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন হয়।

তিনি বলেন, মেয়ে ও বখাটে ছেলে উভয়ই ইয়াবা আসক্ত মনে হচ্ছে। এ নিয়ে কালীগঞ্জের জনপ্রতিনিধিরা একাধিকবার শালিস করেও কোন সুরাহা করতে পারেনি। ফলে আদালতের দারস্থ হন মেয়েটির পিতা।