গুরুদাসপুর পৌরসভায় খোলা বাজারে চাল বিক্রি শুরু

নাটোরের গুরুদাসপুর পৌরসভায় হতদরিদ্রদের মাঝে ১০ টাকা কেজি দরে খোলা বাজারে চাল বিক্রি শুরু হয়েছে। 


মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) সকালে পৌরসভার দুইটি স্থানে ওই চাল বিক্রি শুরু হয়। 

এ সময় স্থানীয় সাংসদ নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি চাঁচকৈড় বাজারে এবং গুরুদাসপুর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গুরুদাসপুর বাজারে ওই চাল বিক্রির উদ্বোধন করেন এবং এ সময় উপস্থিত ছিলেন গুরুদাসপুর উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা উম্মে কুলসুম, খাদ্য গুদাম কর্মতর্কতা( ওসিএলএসডি) আব্দুর রউফ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. আলাল শেখ, গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইর্ন্চাজ (ওসি) মো. মোজাহারুল ইসলাম, নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আব্দুর রহিম মোল্লা প্রমুখ।

জানা যায়, পৌরসভার মোট ৯টি ওয়ার্ডে সপ্তাহে তিন দিন ওই চাল বিতরণ কার্যক্রম চলবে। পুরো উপজেলা ও পৌরসভা ঘুরে এই কার্যক্রম তদারকি করবেন গুরুদাসপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো.তমাল হোসেন ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো.আনোয়ার হোসেন।

গুরুদাসপুর পৌর মেয়র শাহনেওয়াজ আলী জানান, গুরুদাসপুর ১নং পৌরসভা হলেও অধিকাংশ জনসাধারণই গরিব শ্রেণির। এখানে মুলত ৫ জন ডিলার নিয়োগ দেওয়া থাকলেও সরকারি চাল সরবরাহ কম থাকায় ১০ কেজির পরিবর্তে ৫ কেজি, কখনও ৩ কেজি করে চাল দেওয়া হচ্ছে। কাজ কর্ম বন্ধ থাকায় খেটে খাওয়া মানুষগুলো হুমরি খেয়ে পরছে। তাই বাধ্য হয়ে ১০ কেজির পরিবর্তে ৫ থেকে ৩ কেজি চাল দিতে বাধ্য হচ্ছি। 

তিনি আরও বলেন, গুরুদাসপুর পৌরসভার প্রায় ৩৭ হাজার মানুষের মধ্যে ৪০ শতাংশই খেটে খাওয়া মানুষ। তাই সরকারের কাছে অনুরোধ, এদের কথা বিবেচনা করে যেন চালের পরিমান বৃদ্ধি করা হয়। এতে দেশের এ করোনা পরিস্থিতিতে অসহায় মানুষগুলোর দুঃখ কষ্ট কিছুটা হলেও লাঘব হবে।