শিবগঞ্জে হালুয়া তৈরি নিয়ে বিরোধে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা

বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলায় শবে বরাতের হালুয়া তৈরি নিয়ে বিরোধে স্বামী মোকসেদ আলী তার স্ত্রী বরুল বিবি (৫০) নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। ঘটনার পর স্বামী, ছেলে ও ছেলের বউ বাড়ি থেকে পালিয়ে গেছেন। 

বুধবার (৮ এপ্রিল) রাতে উপজেলার কিচক ইউনিয়নের সালদা পশ্চিমপাড়া গ্রামের বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, শিবগঞ্জ উপজেলার সালদা পশ্চিমপাড়া গ্রামের কৃষক মোকসেদ আলী কয়েক বছর আগে বরুল বিবিকে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। বুধবার সন্ধ্যায় শবে বরাতের হালুয়া তৈরি নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মাঝে বাকবিতণ্ডা হয়। তখন মোকসেদ আলী স্ত্রী বরুল বিবিকে প্রহার করেন। মধ্যরাতে এনিয়ে তাদের মধ্যে ফের বাকবিতণ্ডা হলে স্বামী মোকসেদ আলী বরুল বিবিকে আবারও পিটিয়ে জখম করে। 

অবস্থা বেগতিক দেখে বাড়ির লোকজন বরুল বেগমকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার চেষ্টা করেন। পথিমধ্যে তিনি মারা গেছেন বুঝতে পেরে লাশ বাড়িতে ফিরিয়ে আনা হয়। এই খবর পাওয়ার পর স্বামী মোকসেদ আলী ও অন্যরা পালিয়ে যান।

খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার সকালে শিবগঞ্জ থানা পুলিশ গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

শিবগঞ্জ থানার ওসি মিজানুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, হত্যায় জড়িতরা ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে। তাদের গ্রেপ্তারের অভিযান চলছে।