পুঠিয়ায় স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা করে স্বামী পলাতক

রাজশাহীর পুঠিয়ায় জামফুরা বেগম (৪৫) নামে এক গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যা করেছে তারই স্বামী। এ ঘটনায় পর থেকে গৃহবধূর স্বামী পলাতক রয়েছে। 

বুধবার (১৩ মে) সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে পারিবারিক কলহের জেরে জামফুরা বেগমকে দেশিয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন তার স্বামী জালাল উদ্দীন মন্ডল। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে গুরুতর অবস্থায় পুঠিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে আনলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করে।

এ ঘটনায় নিহতের ছেলে পিতার বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছে।

নিহতের ছেলে লালু মন্ডল বলেন, 'পারিবারিক কলহের জেরে আমার পিতা ক্ষিপ্ত হয়ে দা দিয়ে কুপিয়ে মাকে জখম করেন। এতে মায়ের মৃত্যু হয়। এ ঘটনার পর থেকে আমার বাবা পলাতক রয়েছেন।'

এ ব্যাপারে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল ইসলাম বলেন, গৃহবধূ হত্যার ঘটনায় গতকাল বুধবার রাতে ছেলে বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলায় একমাত্র আসামি করা হয়েছে তার পিতা জালাল উদ্দীন মন্ডলকে। বর্তমানে আসামি পলাতক রয়েছে। তাকে আটক করতে পুলিশের অভিযান চলছে।