করোনা উপসর্গে নার্সের মৃত্যু, রিপোর্টে নেগেটিভ

করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের নার্সিং সুপারভাইজার শেফালি দাস (৫৫) মারা গেছেন। উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করলেও তার নমুনা পরীক্ষায় নেগেটিভ এসেছে। 


বুধবার (২০ মে) রাতে ওই নার্সের মৃত্যু হয় এবং বৃহস্পতিবার (২১ মে) বিকেলে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. চিত্তরঞ্জন দেবনাথ এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বুধবার রাত ১২টার দিকে শেফালি দাস নিজ বাসায় গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. লক্ষ্মী নারায়ণ জানান, হাসপাতালে সেবা দেয়ার সময় শেফালি দাসের করোনা পজিটিভ হয়। পরে দ্বিতীয়বার পরীক্ষায় নেগেটিভ আসে। তৃতীয়বার গত ১৩ মে পরীক্ষা করা হলেও করোনা নেগেটিভ আসে।

মৃত শেফালি দাসের মেয়ে আদ্রিতা দেব তিথি জানান, রাতে বাসায় হঠাৎ তার মায়ের শরীর ঘামতে থাকে ও শ্বাসকষ্ট বেড়ে যায়। মুহুর্তের মধ্যেই সে নিস্তেজ হয়ে যায়। দ্রুত হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বাংলাদেশ নার্সেস অ্যাসোসিয়েশনের ময়মনসিংহ শাখার সভাপতি নার্স লুৎফর রহমান জানান, নার্সিং সুপারভাইজার শেফালি দাস ভালো ও বিনয়ী ছিলেন। তার মৃত্যুতে আমরা গভীরভাবে শোকাহত।

বাংলাদেশ নার্সেস অ্যাসোসিয়েশনের ময়মনসিংহ শাখার সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমানে ঢাকা সেবা মহাবিদ্যালয়ের প্রভাষক নাজমা খাতুন জানান, সুপারভাইজার শেফালি দাসের মৃত্যুতে আমরা একজন পেশাদার আদর্শ সহকর্মী সেবিকাকে হারালাম।