আদমদীঘিতে বাবা-মায়ের সাথে অভিমানে কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা

বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার তিয়রপাড়া গ্রামে ইফতারি তৈরি করাকে কেন্দ্র করে বাবা ও মায়ের সাথে অভিমান করে সাদিয়া আরফিন প্রিয়া (২৪) নামে এক কলেজ ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। 

শুক্রবার (২২ মে) গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে। 

নিহত সাদিয়া আরফিন প্রিয়া উপজেলার সান্তাহার তিয়রপাড়া গ্রামের বছির উদ্দিনের মেয়ে।

জানা যায়, শুক্রবার বিকেলে বাড়িতে ইফতারি সামগ্রী তৈরি করা নিয়ে সাদিয়া আরফিনের সাথে তার বাবা-মায়ের সাথে বাকবিতন্ডা হয়। এতে সে অভিমান করে তার শয়ন ঘরে ঘুমিয়ে পড়ে। এরপর আনুমানিক রাত ১টায় বাড়ির বারান্দায় তীরের সাথে সে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। শনিবার সকালে পরিবারের সদস্যরা ফাঁস দেওয়া অবস্থায় তাকে দেখতে পেয়ে থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল এসে লাশ উদ্ধার করে। 

আদমদীঘি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জালাল উদ্দিন এ ব্যাপারে বলেন, বাবা ও মায়ের সাথে অভিমান করে কলেজ ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। পরিবারের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ না থাকায় ময়নাতদন্ত ছাড়াই অভিভাবকদের লাশ দাফনের অনুমতি দেয়া হয়েছে।