স্ত্রীসহ করোনায় আক্রান্ত র‌্যাপিড টেস্টিং কিটের উদ্ভাবক ড. ফিরোজ

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের উদ্ভাবিত র‌্যাপিড টেস্টিং কিটের অন্যতম উদ্ভাবক ও নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) শিক্ষক ড. ফিরোজ আহমেদ ও তার স্ত্রী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (৪ জুন) ড. ফিরোজ আহমেদ করোনাভাইরাসে আক্রান্তের বিষয়টি নিজেই নিশ্চিত করেছেন।

ড. ফিরোজ আহমেদ জানান, করোনা উপসর্গ দেখা দিলে ২৬ মে গণস্বাস্থ্যের র‌্যাপিড টেস্টিং কিটে নমুনা পরীক্ষা করে করোনা পজেটিভ রেজাল্ট আসে। পরবর্তীতে পিসিআর ল্যাবের পরীক্ষাতেও ড. ফিরোজ ও তার স্ত্রীর একই ফলাফল আসে।

সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কে ড. ফিরোজ আহমেদ বলেন, শারীরিক ও মানসিকভাবে আমি ও আমার স্ত্রী শক্ত আছি। জটিল কোন উপসর্গ নেই এখনও। হালকা জ্বর এবং ডায়রিয়া আছে। তবে কাশি নেই। সবাই আমাদের সুস্থতার জন্য দোয়া করবেন।

উল্লেখ্য, ড. ফিরোজ আহমেদ গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের উদ্ভাবিত র‌্যাপিড টেস্টিং কিটের অন্যতম উদ্ভাবক। ড. বিজন শিলের নেতৃত্বে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে স্বল্প সময় ও স্বল্প মূল্যে করোনা শনাক্তকরণ কিট উদ্ভাবন কাজের সাথে প্রথম থেকেই যুক্ত ছিলেন ড. ফিরোজ আহমেদ। তিনি নোবিপ্রবির মালেক উকিল হলের প্রভোস্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। বাংলাদেশ গ্রাজুয়েট মাইক্রোবায়োলজি সোসাইটি (জিএমএস) এর সভাপতি হিসেবেও কাজ করছেন তিনি। এছাড়াও ড. ফিরোজ আহমেদের স্ত্রী ডা. সামিনা সুলতানা একজন বিশেষজ্ঞ গাইনী ডাক্তার হিসেবে কাজ করছেন।