কুমারখালীতে যুবক খুন, ভাই-বোন আটক

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে তৌকির আলী (২৫) নামে এক যুবককে বটি দিয়ে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় জড়িত দুইজনকে আটক করেছে কুমারখালী থানা পুলিশ।

শনিবার রাত ৯টার দিকে উপজেলার কয়া ইউনিয়নের মালিথাপাড়া আবাসনে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত তৌকির কয়া আবাসনের মালিথাপাড়ার বাবলু মালিথার ছেলে। তিনি মোবাইল ফোন সারনোর কাজ করতেন।

নিহতের চাচাত ভাই শরিফুল ইসলাম জানান, কয়েকদিন পূর্বে উত্তর কয়া আবাসনের আজবাহারের ছেলে বিপ্লব ওরফে বিল্লু (২০) তৌকিরের কাছে মোবাইল ফোন মেরামত করতে দেন। পরে তৌকির মোবাইল মেরামত করে তাকে ফোনটি ফেরত দিলেও বিল্লু মোবাইল বিষয়টি অস্বীকার করে। শনিবার রাতে বিল্লু ও তার বোন যুথি খাতুন তৌকিরের বাড়িতে এসে ফোন সেটটি ফেরত চান। এসময় তাদের তৌকিরের সঙ্গে বচসা বাধে। এক পর্যায়ে বিল্লু তৌকিরকে বটি দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করেন। পরে স্থানীয়রা তাকে কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে কুমারখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, মোবাইল ফোন নিয়ে বিরোধে তৌকির নামে এক যুবক নিহত হয়েছে। হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত বিল্লু ও তার বোন যুথি খাতুনকে ইতিমধ্যে আটক করা হয়েছে।