রামেকে করোনা ও উপসর্গে ১৪ জনের মৃত্যু

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে করোনা ও উপসর্গ নিয়ে আরও ১৪ জন মারা গেছেন।  

মঙ্গলবার সকাল ৮ টা থেকে বুধবার সকাল ৮ টার মধ্যে হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ইউনিটে তারা মারা যান।

বুধবার ( ৪ আগষ্ট ) রামেক  হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মৃতদের মধ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে ৪ জন, উপসর্গ নিয়ে ৮ জন এবং করোনামুক্ত(নেগেটিভ) হওয়ার পরও ২ জন মারা গেছেন।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহীর ৪ জন, নাটোরের  ৪ জন, নওগাঁর ৩ জন এবং পাবনা,কুষ্টিয়া ও চুয়াডাঙ্গার ১ জন করে মারা গেছেন । যাদের মধ্যে  ৬ জন পুরুষ এবং ৮ জন নারী।  মৃতদের ৭ জনের বয়স ৬১ বছরের ওপরে। এ ছাড়া ৫১-৬০ বছরের মধ্যে ১ জন, ৪১-৫০ বছরের মধ্যে ২ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ৩ জন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে ১  মারা গেছেন।

মঙ্গলবার সকাল ৮ টা পর্যন্ত ৫১৩ শয্যার রামেক করোনা আইসোলেশন ইউনিটে রোগী ভর্তি ছিলেন ৪৪০ জন। করোনা নিয়ে এ পর্যন্ত ভর্তি রয়েছেন ১৮৮ জন। এ ছাড়া উপসর্গ নিয়ে ভর্তি রয়েছেন ১৩৫ জন। করোনা ধরা পড়েনি হাসপাতালে ভর্তি ৭৯ জনের নমুনায়। এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৪৮ জন। এই এক দিনে হাসপাতাল ছেড়েছেন ৩০ জন।

এর আগে মঙ্গলবার রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল ও রাজশাহী মেডিকেল কলেজের দুইটি রিয়েলটাইম পিসিআর ল্যাবে মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে (১৮৮ +২৮৮) ৪৭৬ জনের, তারমধ্যে করোনা শনাক্ত হয়েছে (৪৫+৬৮) ১১৩ জনের। পরীক্ষার অনুপাতে রাজশাহীর ২৪ দশমিক ৯৩ শতাংশ নমুনায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ।