মুকসুদপুরে দখল হওয়া শতবছরের খাল উদ্ধারে ইউএনও

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার দখল হওয়া শতবছরের খাল উদ্ধারে নেমেছেন মুকসুদপুর ইউএনও। এ খাল উদ্ধারে ফলে সুফল পাবে পৌর সদরের টেংরাখোলা, গোপিনাথপুর, চন্ডিবরদী গ্রামের বাসিন্দারা।

জানাগেছে, এক সময় খালটি পানি প্রবাহ ছিল আর এ খাল দিয়ে বিভিন্ন এলাকার থেকে টেংরাখোলা বাজারে এসে হাট করতো। অবৈধ দখল হয়ে যাওয়া পৌর সদরের চৌরঙ্গি থেকে আটাডাংগার বাওড় পর্যন্ত খাল পরিষ্কার ও খাল থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযানে নেমেছে উপজেলা প্রশাসন।

শুক্রবার (৮ অক্টোবর) চলমান কার্যক্রমে চরপাড়া থেকে খাল পরিষ্কার এবং খালের  উপরে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান শুরু করা হয়েছে। অভিযানে উপস্থিত ছিলেন মুকসুদপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ কাবির মিয়া, উপজেলা নির্বাহী অফিসার জোবায়ের রহমান রাশেদ, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আলাউল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রান ও সমাজ কল্যান সম্পাদক হায়দার হোসেন, সাংবাদিক ছিরু মিয়া,  বাংলার নয়ন পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক তারিকুল ইসলাম, গোপালগঞ্জ কন্ঠ পত্রিকার  প্রকাশক ও ব্যবস্থাপনা সম্পাদক  নাহিদ পারভেজ জনি, প্রমুখ।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জোবায়ের রহমার রাশেদ বলেন, সারাদেশে দখলকৃত নদী উদ্ধারের অংশ হিসাবে এ খালটি দখলমুক্ত উদ্দ্যেগ গ্রহন করা হয়। এছাড়া এখানে যেহেতু পৌর সদর এলাকা তাই বর্জ্য অপসারণের পাশাপাশি আমরা খালের পাড় বাঁধানো, গাছ লাগানো ও ওয়াকওয়ে নির্মাণ পরিকল্পনা করেছি।