‘আমার বয়স এতো না’

কুমিল্লা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ ইসমাইল প্রায় ৯০ বছর বয়সে বিয়ে করে ব্যাপক আলোচনার জন্ম দিয়েছেন। তবে মোহাম্মদ ইসমাইলের দাবি তার বয় বাড়িয়ে বলা হচ্ছে।


বিয়ে প্রসঙ্গে তিনি গণমাধ্যমকে বলেছেন, শেষ বয়সে শরীরে শক্তি থাকে না। এ সময় একজন সঙ্গী হলে পথচলা সহজ হয়। তাই বিয়ে করলাম।  


বয়স নিয়ে তিনি বলেন, ৯০-৯৩ বলা হলেও আমার বয়স আসলে অত না। ৮৫-৮৬ হতে পারে।


সোমবার দুপুরে কুমিল্লা নগরীর দেশওয়ালীপট্টির ৪০ বছর বয়সী এক নারীকে বিয়ে করেন তিনি।


অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ইসমাইল কুমিল্লা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ছিলেন পাঁচবার। তার পাঁচ ছেলে রয়েছে। বিয়েতে ৫০ জনের মতো আত্মীয়-স্বজন উপস্থিত ছিলেন।  


নতুন এই দম্পতির বিয়ের ছবি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেশ রসঘন আলাপ চলছে। বরের বয়স নিয়ে অনেকেই রসিকতা করার চেষ্টা করছেন। তবে বেশিরভাগ মানুষই বিষয়টিকে ইতিবাচকভাবে দেখছেন।


তার প্রথম স্ত্রী মাহমুদা বেগম সাত বছর আগে মারা গেছেন। তাই নিঃসঙ্গতা কাটানোর জন্যই তিনি বিয়ে করেছেন। তিনি ১৯৭০ সালে কুমিল্লার আদালতে আইনজীবী হিসেবে কাজ শুরু করেন। এখনও তিনি নিয়মিত আদালতে যান, মামলা লড়েন।