স্বামীকে গলা কেটে হত্যার অভিযোগ স্ত্রীর বিরুদ্ধে

কুষ্টিয়ার আড়ুয়াপাড়ায় সাব্বির আহমেদ (৩৭) নামে এক যুবককে গলাকেটে হত্যা করা হয়েছে। সাব্বিরের দ্বিতীয় স্ত্রী রোজিনা খাতুন এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত বলে অভিযোগ উঠেছে।


সোমবার ভেরারাত ৩টার দিকে আড়ুয়াপাড়ার নিজ বাড়িতে ধারালো ছুরি দিয়ে সাব্বির আহমেদের গলা কেটে স্ত্রী রোজিনা খাতুনপালিয়ে যান বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে।


পরে সাব্বিরকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে সকাল ৭টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।


নিহত সাব্বির আড়য়াপাড়া এলাকার মৃত রমজান আলীর ছেলে।


নিহততের চাচাতো ভাই তামিম আহমেদ বলেন, ভোররাত ৩টার দিকে তার ভাই সাব্বিরকে ছুরি দিয়ে গলা কেটে পালিয়ে যান দ্বিতীয় স্ত্রী রোজিনা খাতুন। মুমূর্ষু অবস্থায় আমরা তাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সাব্বিরের মৃত্যু হয়। এক মাস আগে রোজিনার সাথে সাব্বিরের বিয়ে হয়। রোজিনা তার দ্বিতীয় স্ত্রী বলে জানান তামিম।


কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেলোয়ার হোসেন বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, ধারালো ছুরি দিয়ে সাব্বিরের শ্বাসনালী কেটে হত্যা করা হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ময়না তদন্তের জন্য মরদেহ মর্গে রাখা হয়েছে।