কুষ্টিয়ায় স্কুলছাত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, প্রেমিক গ্রেফতার

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে এক স্কুলছাত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ ও সেই ভিডিও ধারণ করে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে কথিত প্রেমিক ধর্ষক আলামিন হোসেনকে (২৪) গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। ২ অক্টোবর, রবিবার দিবাগত রাতে গাজীপুর থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। আলামিন হোসেন কুমারখালী উপজেলার আলাউদ্দিন নগর এলাকার মুক্তার হোসেনের ছেলে।


৩ অক্টোবর, সোমবার বেলা ১১টায় র‌্যাব-১২ কুষ্টিয়া ক্যাম্পের কমান্ডার স্কোয়াড্রন লীডার মোহাম্মদ ইলিয়াস খান সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।


তিনি জানান, কুমারখালী উপজেলার নন্দলালপুরের এক ছাত্রীর সঙ্গে পার্শ্ববর্তী আলাউদ্দিন নগর এলাকার যুবক আলামিন হোসেন প্রেমের অভিনয় করে। এর সূত্র ধরে গত ৬ মার্চ রাতে আলামিন হোসেন ওই স্কুলছাত্রীকে তার বাড়িতে ডেকে নেয়। সেখানে আগে থেকে অবস্থান করেছিল তার দুই বন্ধু ইমন ও নাকিব। এক পর্যায়ে আলামিন ও তার দুই বন্ধু স্কুলছাত্রীকে পলাক্রমে ধর্ষণ করে। ধর্ষণের ঘটনা ইমন তার মোবাইল ফোনে ভিডিও করে রাখে। পরে ধর্ষণের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে আলামিন ওই স্কুল ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে ওই ভিডিও গ্রামের কয়েকজনের মোবাইলে ছড়িয়ে পড়লে ঘটনাটি জানাজানি হয়।


এ ঘটনায় ওই ভোক্তভোগীর দাদি বাদী হয়ে গত ২২ সেপ্টেম্বর কুমারখালী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইন এবং পর্ণোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করেন। মামলার সূত্র ধরে পলাতক আসামি আলামিন হোসেনকে গাজীপুর থেকে গ্রেফতার করা হয়।