চট্রগ্রামের প্রবর্তক মোড়ে বসলো আইযুব বাচ্চুর রূপালী গিটার

প্রয়াত ব্যান্ড তারকা ও গিটার লিজেন্ড আইয়ুব বাচ্চুর নামে চট্রগ্রামের প্রবর্তক মোড়ে হতে যাচ্ছে আইয়ুব বাচ্চু চত্বর। এই কাজের অংশ হিসেবে আজকে প্রবর্তক মোড়ে বসানো হয়েছে আইযুব বাচ্চুর সেই রূপালী গিটার।

বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে এই গিটারটি বসানো হয়।

এরআরবি ব্যান্ডের প্রতিষ্ঠাতা বাচ্চুকে বাংলাদেশের জনপ্রিয় সঙ্গীতের ধারায় অন্যতম শ্রেষ্ঠ শিল্পী এবং গীটারবাদক বলা হয়। বাচ্চু চট্টগ্রামে ১৯৭৬ সালে কলেজ জীবনে "আগলি বয়েজ" নামক ব্যান্ড গঠনের মাধ্যমে তার সঙ্গীত জীবনের সূচনা করেছিল। ১৯৭৭ সালে সে "ফিলিংস" (বর্তমানে "নগর বাউল" নামে পরিচিত) এ যোগদান করে এবং ব্যান্ডটির সাথে ১৯৮০ সাল পর্যন্ত কাজ করেছিল।

একই বছরে সে জনপ্রিয় রক ব্যান্ড সোলস এ প্রধান গীটারবাদক হিসেবে যোগদান করেছিল। সোলসের সাথে সে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত কাজ করেছিল। ১৯৯১ সালের ৫ এপ্রিল সে তার নিজের ব্যান্ড লিটল রিভার ব্যান্ড গঠন করে, যা পরবর্তীকালে লাভ রান্স ব্লাইন্ড নামে বা সংক্ষেপে এলআরবি নামে জনপ্রিয়তা লাভ করে।

তার মৃত্যু অবধি ২০১৮ সাল পর্যন্ত ২৭ বছর ধরে ব্যান্ডটির সাথে ছিল। একজন একক শিল্পী হিসেবেও তিনি সফলতা পেয়েছিল। তার প্রথম একক অ্যালবাম রক্ত গোলাপ ১৯৮৬ সালের সেপ্টেম্বর মাসে বের হয়েছিল। তার দ্বিতীয় অ্যালবাম ময়না (১৯৮৮) দিয়ে সে সফলতা অর্জন করে এবং পরে কষ্ট (১৯৯৫) বের করে যা প্রচুর সফলতা অর্জন করে। ২০০৭ সালে সে দেশে প্রথম বাদ্যযন্ত্রগত অ্যালবাম সাউন্ড অফ সাইলেন্স প্রকাশ করে। এই কিংবদন্তী যেসব গান উপহার দিয়েছেন তার মধ্যে একটি গানের শিরোনাম ছিল ‘রূপালি গিটার’।