করোনা: ঘনিষ্ঠ দৃশ্যের শুটিংয়ে আসছে পরিবর্তন

করোনায় থমকে গিয়েছে গোটা দেশ। বিনোদন জগতেও প্রভাব পড়েছে এর। বন্ধ রয়েছে শুটিং, সিনেমা হল। তবে লকডাউন উঠে গেলেই যে সব আগের মতো পরিস্থিতিতে পৌঁছে যাবে তার কোনো নিশ্চয়তা নেই।

ভারতের বহু ইন্ডাস্ট্রিতে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে এই করোনার জন্য। আর এর মধ্যে অন্যতম হলো ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি। ছবি বানাতে গেলে প্রয়োজন হয় একটা বড় টিমের।

২০ টি দেশের ফিল্ম বিভাগের প্রতিনিধিরা জুম অ্যাপ এর মাধ্যমে ভিডিও কলিং এ মিটিং করেছিলেন। এর মধ্যে ভারত, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ইংল্যান্ড সহ আরো কয়েকটি দেশ ছিল। এই মিটিংয়ে নতুন কিছু নিয়মের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। CINTAA এর চেয়ারপারসন অমিত বেহল ভারতের হয়ে অংশ নিয়েছিলেন।

তিনি বলছেন, ভারতের মতো বড় দেশগুলিকে কিছু নিয়ম মেনে চলতেই হবে। কারণ আমরা বিদেশে গিয়ে শুটিং করি এবং বিদেশের প্রোডাকশন আমাদের দেশে কাজ করতে আসে। তাই ফিল্মের কাজ শুরু হওয়ার আগে অন্যান্য দেশগুলোর সঙ্গে আলোচনা করে নেওয়া প্রয়োজন।

করোনা যদি আরো একবার থাবা বসায় তার জন্য আমাদের প্রস্তুত থাকতে হবে। আমরা ছবির কাজ শুরু করতে চাই। কিন্তু মানুষের প্রাণের বিনিময় নয়। বিভিন্ন ছবিতে ঘনিষ্ঠ দৃশ্যের শুটিং হয়। এই বিষয়েও আলোচনা হয়েছে মিটিংয়ে। সমস্ত নিয়ম মেনে এবং ছবির সেটে একজন ভাইরোলজিস্টের উপস্থিতিতে শুটিং হবে বলে ঠিক করা হয়েছে। চুম্বন দৃশ্যের বা কোনো ঘনিষ্ঠ দৃশ্যের শুটিং হলে সেই ভাইরোলজিস্ট এর মতামত নিয়েই দৃশ্যের শুটিং হবে।