মৌসুমের প্রথম এল ক্লাসিকো রাতে

উপমহাদেশের বিশাল বাজার ধরতে মৌসুমের প্রথম এল ক্লাসিকোর জন্য ছুটির দিনের ‘প্রাইম টাইম’ বেছে নিয়েছে স্প্যানিশ লা লিগা কর্তৃপক্ষ। বাংলাদেশ সময় আজ রাত ৮টা ১৫ মিনিটে ন্যুক্যাম্পে মুখোমুখি হবে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দুই স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সেলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদ।

একটা সময় শুধু লিগের মুখোমুখি লড়াইকে এল ক্লাসিকো বলা হয়ে থাকলেও সময়ের সাথে সাথে বর্তমানে রিয়াল মাদ্রিদ এবং বার্সেলোনার মধ্যকার প্রত্যেকটি ম্যাচকেই এল ক্লাসিকো বলা হয়। ক্লাব ফুটবলে উয়েফা চ্যম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালের পর এল ক্লাসিকোই সেই ম্যাচ যেই ম্যাচ বিশ্বের সবচেয়ে বেশি মানুষ একসাথে উপভোগ করে। মাদ্রিদ সিটি এবং বার্সেলোনা সিটির দুটি ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ এবং বার্সেলোনা । এই দুইটি দল স্প্যানিশ ফুটবল ইতিহাসের সবচেয়ে সফল দুটি দল। যে কারণে এল ক্লাসিকোর সময় এই দুটি দলের প্রতি থাকে বিশ্ববাসীর নজর।

এল ক্লাসিকো মানেই টান টান উত্তেজনা। এল ক্লাসিকো মানেই ক্ষণে ক্ষণে হৃদয়ের স্পন্দন। এল ক্লাসিকো মানেই বিনোদন। অবশ্য এবারের এল ক্লাসিকো একটু অচেনাই বটে। কারণ তাতে যে নেই ফুটবল গ্রহের সেরা তারকা লিওনেল মেসি। তাকে ছাড়া এল ক্লাসিকো রং হারাবে এমনটাই বলা হচ্ছে।

রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো সিরি ‘এ’ তে গেছেন। লিওনেল মেসিও এবার দল ছেড়েছেন। স্টার বলতে এক বেনজেমা? বার্সেলোনায় নেওয়া যায় এমন নামই নেই।

ডি স্টেফানো, ক্রুইফ খেলেছেন লা লিগায়। রিয়াল-বার্সায় পেলে ছাড়া সব যুগেই সেরা খেলোয়াড়েরা খেলেছেন। মনে হয় না কোনও খেলোয়াড় চলে গেলে তেমন ক্ষতি হবে। খেলোয়াড়ের চেয়ে ক্লাব বড়। ভক্তদের কথা খেলোয়াড়দের চেয়ে এখানে ক্লাবই বড়। তাই ম্যাচ যে জমজমাট হবে সে ব্যাপারে আশাবাদী তারা।