দৃশ্যমান হলো পদ্মা সেতুর দুই হাজার ৪০০ মিটার

পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তে ১৬-১৭ নম্বর পিলারে বসেছে সেতুর ১৬তম স্প্যান ৩-ডি। 

মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে স্প্যানটি (সুপার স্ট্রাকচার) পিলারে বসানোর জন্য মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার কুমারভোগের কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে ভাসমান ক্রেন তিয়ান-ই তে করে রওনা হয়। 

১৬-১৭ নম্বর পিলারে স্প্যানটি বসানো হয়েছে বলে নিশ্চিত করেন পদ্মা সেতুর সহকারী প্রকৌশলী (মূল সেতু) হুমায়ুন কবির। ১৬তম স্প্যান বসানোর কারণে সেতুর মোট দুই হাজার ৪০০ মিটার দৃশ্যমান হয়েছে।

এর আগে, গত ২২ অক্টোবর ২৩-২৪ নম্বর পিলারের ওপর ১৫তম স্প্যান বসানো হলে সেতুর দুই হাজার ২৫০ মিটার দৃশ্যমান হয়েছিল।

জানা গেছে, এ মাসেই পদ্মা সেতুতে বসতে যাচ্ছে আরও দুটি স্প্যান। কয়েকদিনের মধ্যে বসানোর শিডিউল আছে স্প্যান ৪-ডি। এটি বসানো হবে ২২-২৩ নম্বর পিলারে। তবে, নাব্যতা সংকটের কারণে এ স্প্যান বসাতে প্রকৌশলীদের অপেক্ষা করতে হচ্ছে। চ্যানেলে নাব্যতা ফেরাতে ড্রেজিং অব্যাহত আছে।

এদিকে, সেতুর মোট ৪১টি স্প্যানের মধ্যে কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডে এসেছে ৩১ স্প্যান। ১৫টি স্থাপন করা হয়েছে, ৫টি প্রস্তুত আছে, ৩টি রং করা বাকি এবং ৮টি স্প্যান ফিটিং করা হচ্ছে।

সেতুর ৪২টি পিলারের মধ্যে ৩৩টির কাজ সম্পন্ন হয়েছে। বাকি পিলারের শুধু ক্যাপিং করার কাজ করতে হবে।

৬ দশমিক ১৫ দৈর্ঘ্যের দ্বিতল সেতুটি কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মাণ করা হচ্ছে। চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি মূল সেতু নির্মাণের কাজ করছে।