করোনাতেই পুতুলের মৃত্যু, আক্রান্ত ছেলে-মেয়ে

মারা যাওযা বগুড়ার সাবেক সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক মহিলাবিষয়ক সম্পাদক কামরুন্নাহার পুতুল (৬৫) করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন।

নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট আসার পর বগুড়া সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সামির হোসেন মিশু শুক্রবার রাতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ১১টার দিকে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর পুতুলের মৃত্যু হয়।

ডা. সামির হোসেন মিশু জানান, শুক্রবার পাওয়া নমুনা রিপোর্টে দেখা গেছে কামরুন্নাহার পুতুল এবং তার ছেলে, ছেলের স্ত্রী এবং তার বাড়ির কেয়ারটেকারও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত।

তিনি জানান, বৃহস্পতিবার কামরুন্নাহার পুতুলের মৃত্যুর পর পরই তার বাড়িটিকে লকডাউন এবং সব সদস্যকে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।

পুতুল সাবেক সংসদ সদস্য মোস্তাফিজার রহমান পটলের স্ত্রী ছিলেন। পুতুল এক ছেলে, দুই মেয়ে, নাতি-নাতনিসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখেগেছেন।

আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে যোগদানের আগে কামরুন্নাহার পুতুল রূপালী ব্যাংকে কর্মরত ছিলেন। ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলেতিনি তৎকালীন বগুড়া-জয়পুরহাট সংরক্ষিত আসনে সংসদ সদস্য হন। তার স্বামী মরহুম মোস্তাফিজার রহমান পটল ১৯৭৩ সালে বগুড়ারগাবতলী আসনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন।