জাগরণ টিভি হবে গণমানুষের সুযোগ্য প্লাটফর্ম: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ডিজিটাল অনলাইন প্লাটফর্ম জাগরণ টিভি হবে প্রযুক্তিনির্ভর ও গণমানুষের সুযোগ্য প্লাটফর্ম।

রবিবার (১৩ জুন) রাজধানীর বাংলামোটরস্থ পদ্মা লাইফ ইন্সুরেন্স ভবনে জাগরণ টিভির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী।

পলক বলেন, আজ দেশে ১২ কোটি, বাংলা ভাষাভাষী ২৫ কোটি এবং বিশ্বে ৪০০ কোটি মানুষ ইন্টারনেটনির্ভর। আজকে এই ডিজিটাল টিভি চ্যানেল জাগরণ টেলিভিশন ইন্টারনেটের মাধ্যমে কোটি কোটি মানুষ দেখতে পারবে। বাংলাদেশে এর দ্রুত সম্প্রসারণ করা সম্ভব হয়েছে শুধু মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃঢ়তা ও তার তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের কল্যাণে। জয়ের দূরদর্শী নেতৃত্ব ও পরিকল্পনার জন্য বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট সৃষ্টি হয়েছে।

জাগরণ টিভির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পলক আরো বলেন, ট্রেডিশনাল মিডিয়া অস্তে আস্তে বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে। অনলাইন রিলেটেড মিডিয়াগুলোর জনপ্রিয়তা বাড়ছে।

তিনি বলেন, আজ ইন্টারনেটের মাধ্যমে শতশত কোটি টাকা আয় হচ্ছে। লাখ লাখ মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়েছে। পাশাপাশি এর অপপ্রচার ও অপব্যবহারও হচ্ছে। যেমনটি বঙ্গবন্ধুর বিরুদ্ধেও অপপ্রচার হয়েছিল।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে সাড়ে ছয় লাখ ফ্রিল্যান্সার, ১৫ লাখ তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থান সবই সম্ভব হয়েছে ডিজিটাল বাংলাদেশের জন্য। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে তার সুযোগ্য উত্তরসূরি ও প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের নেতৃত্বে এই কাজ সম্পন্ন করা সম্ভব হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা নতুন প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধ দেখিনি কিন্তু আমরা দেখেছি একটা সাইবার যুদ্ধ। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিলো শক্তিশালী অর্থনৈতিক স্বয়ং সম্পূর্ণ দেশ। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের অর্জিত স্বাধীনতা মধ্য দিয়ে ডিজিটাল বাংলা রূপকার সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে ও প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের মাধ্যমে বাংলাদেশ হবে জ্ঞানভিত্তিক উদ্ভাবকদের বাংলাদেশ।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ দেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করেছেন। বাংলাদেশ হবে জ্ঞানভিত্তিক। কিন্তু চক্রান্তকারীরা এখনও দেশের বাইরে বসে ষড়যন্ত্র করছে। তারা উন্নয়নের ধারাবাহিকতা স্তব্ধ করারও ষড়যন্ত্র করছে

জাগরণ টিভির শুভ কামনা করে পলক বলেন, আমি বিশ্বাস করি এই ডিজিটাল প্লাটফর্ম জাগরণ টেলিভিশন সবসময় অন্যায়, দুর্নীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকবে। সকল মানুষের পাশে থাকবে। তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের পক্ষ থেকে জাগরণ টিভির সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে বলে আশ্বস্ত করেন প্রতিমন্ত্রী।

দিনব্যাপী জমকালো অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন মাহবুবউল আলম হানিফ, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, জুনাইদ আহমেদ পলক– তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী, অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস-এমপি নাটোর-৪, সভাপতি, নাটোর জেলা আওয়ামী লীগ, ডক্টর মোহাম্মদ সামাদ, উপ-উপচার্য (প্রশাসন), ইঞ্জিনিয়ার মো. আবদুস সবুর, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল – আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক, ডক্টর এমরান কবির চৌধুরী-কুমিল্লার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপচার্য, জেড এম পারভেজ সাজ্জাদ-উপচার্য, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান বিশ্ববিদ্যালয়, কিশোরগঞ্জ, অ্যাডভোকেট সানজিদা খানম, সাবেক সাংসদ, মারুফা আক্তার পপি, সদস্য আওয়ামী লীগ, গোলাম কুদ্দুছ, সভাপতি সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, মোল্লা নজরুল ইসলাম, ডিআইজি, নৌ পুলিশ, মনিরুল ইসলাম, ডিআইজি, সৈয়দ ইসতিয়াক রেজা, প্রধান সম্পাদক, জিটিভি, প্রণব সাহা, সম্পাদক, ডিভিসি নিউজ বাংলা, ইলিয়াস শরীফ, যুগ্ম কমিশনার এন্টি টেরোরিজম ইউনিট, আঙ্গুর নাহার মন্টি, যুগ্ম-বার্তা সম্পাদক, নিউজ২৪টিভি, নাসির উদ্দিন মিতুল, ডিন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, কুহুলি কুদ্দুস মুক্তি, সহ-সভাপতি, যুবলীগ, মাজেদুল বারি নয়ন, মেয়র, বড়াইগ্রাম পৌরসভা, গিয়াস উদ্দিন রুবেল ভাট, মেয়র রায়পুর পৌরসভা, মাজেদ মিন্টু, উপসচিব, দুদক, এস এম মনিরুল ইসলাম মনি, সভাপতি গৌরব ৭১, গুলশাহানা ঊর্মি, প্রেস উইং, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় প্রমুখ।