মোটরসাইকেল না পেয়ে ইভ্যালির বিরুদ্ধে মামলা

অর্ডারের মোটরসাইকেল না দেওয়ায় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির বিরুদ্ধে মামলা করেছেন আলমগীর হোসেন রিগ্যান নামে এক আইনজীবী। মামলায় ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মোহাম্মদ রাসেলসহ ১০ জনকে আসামি করা হয়েছে।

বুধবার (২৯ সেপ্টেম্বর) আইনজীবী আলমগীর হোসেন রিগ্যান নিজেই বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন।

আসামিরা হলেন- ইভ্যালির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মোহাম্মদ রাসেল, প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিন, ভাইস প্রেসিডেন্ট আহমেদ জাহিদ, মেহেদী হাসান, কো-ফাউন্ডার আতিউর রহমান, অ্যাক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর আরিফুল্লাহ খান, এহসান চৌধুরী, ডিরেক্টর ফিরোজ হোসেন, হেড অব কমার্শিয়াল সাজ্জাদ আলম ও চিফ অপারেটিং অফিসার তরিকুল কামরুল।

তিনি বলেন, ২৭ সেপ্টেম্বর ঢাকা মহানগর হাকিম বেগম মাহমুদা আক্তারের আদালতে এ মামলা করেন। আদালত রাজধানীর খিলগাঁও থানাকে বিষয়টি তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন।

মামলায় বাদী অভিযোগ করেন, গত ৩০ এপ্রিল তিনি ইভ্যালির ওয়েবসাইটে সাইক্লোন অফারের টি-টোয়েন্টি বিজ্ঞাপনটি রাত ১০টার দিকে দেখতে পান। পরে সেখান থেকে ১২৫ সিসির একটি হিরো মোটরসাইকেল ৭০ হাজার ৯৯ টাকায় ৭ থেকে ৪৫ দিনে ডেলিভারির আশ্বাসে অর্ডার দেন। যার বর্তমান মূল্য এক লাখ ২৭ হাজার টাকা। বাদী বিভিন্ন সময় অফারের দেওয়া টাকা পরিশোধ করেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত বাদীকে মোটরসাইকেল বুঝিয়ে দেয়নি ইভ্যালি।

এর আগে একই ঘটনায় বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন আলমগীর হোসেন রিগ্যান। পরে ট্রাইব্যুনালের বিচারক আসসাম জগলুল হোসেন মামলাটি খারিজ করে দেন।

গত ১৬ সেপ্টেম্বর বিকেলে রাজধানীর মোহাম্মদপুরে ইভ্যালির এমডি রাসেলের বাসায় অভিযান চালায় র‌্যাব। অভিযান শেষে এ দম্পতিকে গ্রেপ্তার করা হয়।